বঙ্গবন্ধুর ‘অসমাপ্ত আত্মজীবনী’ জাপানি ভাষায়

বাংলা ও ইংরেজির পর এবার জাপানি ভাষায় অনূদিত হলো জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আত্মজীবনীমূলক গ্রন্থ ‘অসমাপ্ত আত্মজীবনী’।

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 1 August 2015, 05:20 PM
Updated : 1 August 2015, 05:20 PM

বইটি জাপানি ভাষায় অনুবাদ করেছেন দেশটির রাষ্ট্রীয় সম্প্রচার মাধ্যম এনএইচকে এর বাংলা বিভাগের প্রধান অনুষ্ঠান পরিচালক কাজুহিরো ওয়াতানাবে।

৬০০ পৃষ্ঠার এই বইটি প্রকাশ করেছে জাপানের শীর্ষস্থানীয় প্রকাশনা সংস্থা ‘আশাহি শোতেন’।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, ‘অসমাপ্ত আত্মজীবনী’র জাপানি সংস্করণ রোববার বঙ্গবন্ধুকণ্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাতে আনুষ্ঠানিকভাবে তুলে দেবেন অনুবাদক ওয়াতানাবে।

বর্তমানে তিনি ঢাকায় অবস্থান করছেন।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলী এবং জাপানে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মাসুদ বিন মোমেনের অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকার কথা রয়েছে। 

১৯৬৭ থেকে ১৯৬৯ পর্যন্ত কারাগারে বন্দি থাকাকালে আত্মজীবনী লেখা শুরু করেন বঙ্গবন্ধু। কিন্তু তা শেষ করে যেতে পারেননি।

চারটি খাতায় তার লেখা সেই পাণ্ডুলিপি ‘অসমাপ্ত আত্মজীবনী’ ও ‘দি আনফিনিশড মেমোরিজ’ নামে ২০১২ সালে প্রকাশ করে দি ইউনিভার্সিটি প্রেস লিমিটেড (ইউপিএল)।

বইটিতে আত্মজীবনী লেখার প্রেক্ষাপট, লেখকের বংশ পরিচয়, জন্ম, শৈশব, স্কুল ও কলেজের শিক্ষাজীবনের পাশাপাশি সামাজিক ও রাজনৈতিক কর্মকাণ্ড, দুর্ভিক্ষ, বিহার ও কলকাতার দাঙ্গা, দেশভাগ, কলকাতাকেন্দ্রিক প্রাদেশিক মুসলিম ছাত্রলীগ ও মুসলিম লীগের রাজনীতির ইতিবৃত্ত রয়েছে।

পাশাপাশি দেশ বিভাগের পরবর্তী সময়ে থেকে ১৯৫৪ সাল পর্যন্ত পূর্ব বাংলার রাজনীতি, কেন্দ্রীয় ও প্রাদেশিক মুসলিম লীগ সরকারের অপশাসন, ভাষা আন্দোলন, ছাত্রলীগ ও আওয়ামী লীগ প্রতিষ্ঠা, যুক্তফ্রন্ট গঠন ও নির্বাচনে বিজয়ী হয়ে সরকার গঠন, আদমজীর দাঙ্গা, পাকিস্তান কেন্দ্রীয় সরকারের বৈষম্যমূলক শাসন ও প্রাসাদ ষড়যন্ত্রের বিস্তৃত বিবরণ এবং এসব বিষয়ে বঙ্গবন্ধুর প্রত্যক্ষ অভিজ্ঞতার বর্ণনা রয়েছে।

কারাগার ও বাইরের জীবন, বাবা-মা, স্ত্রী-সন্তান ও পরিবার-পরিজনের কথাও এতে বলেছেন বাংলাদেশের প্রতিষ্ঠাতা রাষ্ট্রপতি।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক