সাজা শেষে ১৭ বিডিআর সদস্যের মুক্তি

বিডিআর বিদ্রোহের দায়ে নয় মাসের কারাদণ্ড শেষে সোমবার ১৭ বিডিআর (বিজিবি) সদস্যকে মুক্তি দেওয়া হয়েছে।

বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 6 Feb 2012, 03:12 AM
Updated : 6 Feb 2012, 03:12 AM
গাজীপুর, ফেব্র“য়ারি ০৬ (বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম)- বিডিআর বিদ্রোহের দায়ে নয় মাসের কারাদণ্ড শেষে সোমবার ১৭ বিডিআর (বিজিবি) সদস্যকে মুক্তি দেওয়া হয়েছে।
কারা কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, গাজীপুরের কাশিমপুরে অবস্থিত ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারের ইউনিট-১ থেকে আট জন এবং ইউনিট-২ থেকে নয় সদস্য মুক্তি পান।
কারা ইউনিট-১ এর সুপারিনটেডেন্ট মো. জাহাঙ্গীর কবির বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে জানান, বিডিআর বিদ্রোহ মামলায় এ নিয়ে ইউনিট-১ থেকে ৩৬ জন বিডিআর সদস্য মুক্তি পেয়েছে। বর্তমানে এ ইউনিটে আরো ৮০৩ জন বিডিআর সদস্য বন্দি রয়েছে।
মুক্তিপ্রাপ্তরা হলেন দিনাজপুরের মোস্তফা কামাল, ব্রাক্ষণবাড়িয়ার আকরাম হোসেন, টাঙ্গাইলের রেজাউল করিম, ফরিদপুরের বোরহানউদ্দিন, চট্টগ্রামের আলতাফ হোসেন, পাবনার লুৎফুর রহমান প্রামাণিক, শেরপুরের মো. কমর উদ্দিন ও বাগেরহাটের হাফিজুর রহমান।
ইউনিট-২ এর কারাধ্যক্ষ সুভাষ চন্দ্র সাহা জানান, ইউনিট-২ থেকে এ পর্যন্ত ১৪৩ জন বিডিআর সদস্য মুক্তি পেয়েছেন। বন্দি রয়েছেন আরো ১৫৮২ জন।
এখান থেকে মুক্তিপ্রাপ্তরা হলেন সিলেটের শরীফ উদ্দিন, মাদারীপুরের দাদুন মিয়া, গাজীপুরের জাহাঙ্গীর আলম, ঝিনাইদহের আনোয়ার হোসেন, ঢাকার জসিম উদ্দিন, জামালপুরের মো. আসলাম মিয়া, নোয়াখালীর নুরুন নবী, সিরাগঞ্জের শহিদুল ইসলাম ও কুমিল্লার সিরাজুল ইসলাম।
২০০৯ সালের ২৫ ও ২৬ ফেব্র"য়ারি রাজধানীর পিলখানায় তৎকালীন বিডিআর সদস্যদের বিদ্রোহে ৫৬ সেনা কর্মকর্তাসহ ৭৩ জন নিহত হন। ওই বিদ্রোহের পর সীমান্তরক্ষী বাহিনীর নাম পরিবর্তন করে বিজিবি করা হয়। বিদ্রোহের ঘটনায় বিচার হয় পুরনো বিডিআর আইনে।
বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম/প্রতিনিধি/কিউএইচ/আরএ/১৫০৮ ঘ.
তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক