বিপাশা হায়াতের প্রথম একক: ‘ভ্রমি বিস্ময়ে’

admin
Published : 29 Oct 2011, 02:23 AM
Updated : 29 Oct 2011, 02:23 AM


ফান উইথ শ্যাডো, অ্যাক্রেলিক অন ক্যানভাস, ২০১১

ধানমণ্ডির 'বেঙ্গল গ্যালারি অব্ ফাইন আর্টস্‌'-এ ২৫ অক্টোবর ২০১১ থেকে শুরু হয়েছে শিল্পী বিপাশা হায়াতের প্রদর্শনী 'ভ্রমি বিস্ময়ে'। চলবে নভেম্বরের ১ তারিখ পর্যন্ত। ১৯৯৮ থেকে ২০১১ পর্যন্ত সাতটি দল-প্রদর্শনীতে অংশ নিয়ে এলেও এটিই শিল্পীর প্রথম একক। ১৯৯৮ সালে শিল্পী ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইনস্টিটিউট অব ফাইন আর্টস থেকে পেইন্টিংয়ে এমএফএ করেছেন। সে হিসাবে একক প্রদর্শনীর জন্য শিল্পী প্রায় এক যুগ সময় নিলেন বলা যেতে পারে। যদিও প্রদর্শনীর বেশির ভাগ ছবিই (সব ছবিই কি?) ২০১১-তে আঁকা।

বেঙ্গল প্রকাশিত প্রদর্শনীপত্রে শিল্পীর পরিচিতি অংশ থেকে জানা গেল তিনি ১৯৮৫ সাল থেকে মঞ্চ, চলচ্চিত্র ও টেলিভিশনের জন্য অভিনয় ও নাট্ক লেখার কাজ করে আসছেন। মুক্তিযুদ্ধ নিয়ে তৈরি চলচ্চিত্র আগুনের পরশমণিজয়যাত্রায় অভিনয় করেছেন। তিনি নাটকের নির্দেশনা দিয়ে থাকেন এবং তার লিখিত নাটকের সংখ্যা প্রায় ৪০টি। প্রদর্শনীপত্রে সৈয়দ মনজুরুল ইসলাম তাঁর ইংরেজি ভাষ্যে জানাচ্ছেন বিপাশার এই একক প্রদর্শনীটি শেষ পর্যন্ত একটি আবিষ্কারের অভিযাত্রা।

প্রদর্শনী বিষয়ে বেঙ্গল গ্যালারি অব্ ফাইন আর্টস্‌-এর ভাষ্য:

অভিনেত্রী হিসেবে সমধিক পরিচিত হলেও তিনি চিত্রশিল্পীও বটে। তাঁর ছবির কম্পোজিশন যতটা না বিষয়কে ঘিরে আবর্তিত হয়, তার থেকে বেশি কেন্দ্রীভূত থাকে শিল্পীর মনের গভীরে যে-ভাব রয়েছে তার ওপর। সেজন্যই তাঁর চিত্রকর্ম মনের অন্তর্যাত্রাকে অনুসরণ করে আরেক সূত্র ধরে আসে গাঢ় রঙের ব্যবহার। তাঁর চিত্রকর্মে রঙের ব্যবহার ঘটে স্তরে স্তরে, যা শেষ পর্যন্ত রঙের টেক্সচার হিসেবে আবির্ভূত হয়। তবে তাঁর প্রতিটি কাজই একেকটি ভিন্ন ভাবকে কেন্দ্র করে আবর্তিত ভিন্ন ভিন্ন বোধকে প্রতিফলিত করে। সেদিক থেকে তাঁর প্রদর্শনীর নামকরণ 'ভ্রমি বিস্ময়ে' যুক্তিসঙ্গত।

তাঁর জন্ম হয়েছিল ১৯৭১ সালের মার্চে এবং মুক্তিযুদ্ধের চেতনা তাঁর মনোজগতে অত্যন্ত শক্তিশালীভাবে উপস্থিত। তিনি মুক্তিযুদ্ধের ওপর একটি সিরিজ করেছেন, যেখানে হত্যাযজ্ঞ আর রক্তপাতের কারণে তাঁর অন্তরের রক্তক্ষরণ এবং পাশাপাশি বিজয়ের আনন্দ প্রতিফলিত। বর্তমান প্রদর্শনীটি তাঁর প্রথম একক প্রদর্শনী এবং তাঁর মনের অন্তর্যাত্রা আর আবিষ্কারের কাহিনী। তিনি তাঁর মনকে আবিষ্কারের ব্রত নিয়ে এঁকেছেন একের পর এক ছবি, যা দর্শককে এক অন্তর্যাত্রায় টেনে নিয়ে যাবে।

বিপাশা হায়াতের এই একক 'যাত্রা'–সপ্তাহব্যাপী এই প্রদর্শনী–বেঙ্গল ও সৈয়দ মনজুরুল ইসলাম সূত্রে 'আবিষ্কার', 'ডিসকভারি' ও 'অন্তর্যাত্রা' হিসাবে দর্শকের কাছে উপস্থাপিত।

————————————————-

প্রদর্শনীর কিছু ছবি
ছবি বড় সাইজে দেখতে ছবিতে ক্লিক করুন।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক