bdnews24.com - Home http://bangla.bdnews24.com/ The RSS feed of bdnews24.com en Bangladesh News 24 Hours Ltd. 2016-12-10 18:04:31.0 2016-12-10 18:04:31.0 Home customGroupedContent 1 2 Home samagrabangladesh সমগ্র বাংলাদেশ news-district 9945 1310939 মৌলভীবাজার প্রতিনিধি, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম মৌলভীবাজার প্রতিনিধি, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম 2017-03-29 09:29:58.0 2017-03-29 11:04:44.0 মৌলভীবাজারে দুই ‘আস্তানা’ ঘিরে পুলিশ, গুলি-বিস্ফোরণ মৌলভীবাজারে দুই ‘জঙ্গি আস্তানা’ ঘিরে অভিযান, গুলি-বিস্ফোরণ সিলেটের দক্ষিণ সুরমায় এক জঙ্গি আস্তানায় দীর্ঘ পাঁচ দিনের অভিযান শেষ হওয়ার পর এবার মৌলভীবাজারের দুটি এলাকায় দুই প্রবাসীর বাড়ি ঘিরে অভিযান শুরু করেছে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী। সিলেটের দক্ষিণ সুরমায় এক জঙ্গি আস্তানায় দীর্ঘ পাঁচ দিনের অভিযান শেষ হওয়ার পর এবার মৌলভীবাজারের দুটি এলাকায় দুই প্রবাসীর বাড়ি ঘিরে অভিযান শুরু করেছে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী। false http://bangla.bdnews24.com/samagrabangladesh/article1310939.bdnews false http://d30fl32nd2baj9.cloudfront.net/media/2017/03/29/moulvibazar-rab.jpg/ALTERNATES/w300/Moulvibazar+Rab.jpg
এর মধ্যে একটি বাড়ি থেকে পুলিশের দিকে গুলি ও গ্রেনেড ছোড়ার খবর পাওয়া গেছে।

র‌্যাবের শ্রীমঙ্গল ক্যাম্পের অধিনায়ক এএসপি মাইনুদ্দীন জানান, একটি বাড়ি মৌলভীবাজার পৌরসভার বড়হাট এলাকায়। অন্যটি সদর উপজেলার খলিলপুর ইউনিয়নের সরকার বাজারের কাছে ফতেহপুর গ্রামে।

জঙ্গি আস্তানা সন্দেহে বুধবার ভোরে স্থানীয় পুলিশ ওই বাড়ি দুটি ঘিরে ফেলে জানিয়ে মাইনুদ্দীন বলেন, “র‌্যাব সদস্যরা সেখানে গেছেন। ঢাকা থেকে কাউন্টার টেররিজম ইউনিটের একটি দলও এসেছে।”

কাউন্টার টেররিজম ইউনিটের ওই দলের সঙ্গে আছেন উপ কমিশনার মহিবুল ইসলাম। তিনি জানিয়েছেন, সীতাকুণ্ড ও সিলেটে জঙ্গি আস্তানার খোঁজ মেলার পর তদন্তে মৌলভীবাজারের এই দুই বাড়ির তথ্য পাওয়া যায়।

“বড়হাটের ওই বাড়ির সন্ধান পাওয়া যায় গতকাল রাতে। পরে ভোরের দিকে সরকার বাজারের বাড়িটির খোঁজ পাওয়া যায়।”

মহিবুল ইসলাম বলেন, “সরকার বাজারের ওই বাসায় যাওয়ার পর ভেতর থেকে গ্রেনেড ও গুলি ছোড়া হয়। পুলিশও পাল্টা গুলি ছোড়ে।”

পুলিশের বিশেষায়িত এই ইউনিটের কর্মকর্তা বলেন, তারা দুটো বাসা ঘিরে রেখেছেন এবং ভেতরের সন্দেহভাজন জঙ্গিদের সঙ্গে কথা বলার চেষ্টা করছেন।

“তারা এখনও কোনো কথা বলেনি। আমরা অপারেশনাল স্ট্র্যাটেজি অনুযায়ী তাদের সাথে কথা বলার চেষ্টা করব।”

অভিযানের অংশ হিসেবে বড়হাট ও আশপাশের এলাকার গ্যাস এবং সরকার বাজার এলাকার গ্যাস ও বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ রাখা হয়েছে।

পুলিশ কর্মকর্তারা জানান, বাড়ি দুটির মালিক সাইফুর সাব্বির  ও আতব্বর মিয়া নামের দুই ব্যক্তি। তারা একই পরিবারের সদস্য এবং দুজনেই লন্ডন প্রবাসী। দুই বাড়ির দূরত্ব ১৮ কিলোমিটারের মত।

সিলেটের দক্ষিণ সুরমার শিববাড়িতে আতিয়া মহল নামের এক বাড়ি ঘিরে গত ২৩ মার্চ গভীর রাতে একইভাবে অভিযান শুরু করেছিল পুলিশ। পরে সেনাবাহিনীর প্যারা কমান্ডোরা শনিবার সকালে শুরু করে চূড়ান্ত অভিযান- ‘অপারেশন টোয়াইলাইট’।

ওই অভিযান শেষে আতিয়া মহলের ভেতরে এক নারীসহ চার জঙ্গির লাশ পাওয়া যায়। এর মধ্যেই ওই বাড়ির এক কিলোমিটারের ভেতরে জোড়া বিস্ফোরণে নিহত হন দুই পুলিশ কর্মকর্তাসহ ছয়জন।

মঙ্গলবার রাতে সেনাবাহিনী অভিযান সমাপ্ত ঘোষণার পর ১২ ঘণ্টা পার না হতেই পাশের জেলা মৌলভীবাজারে নতুন অভিযান শুরু হল।

]]>
1310959 http://d30fl32nd2baj9.cloudfront.net/media/2017/03/29/moulvibazar-rab.jpg/ALTERNATES/w300/Moulvibazar+Rab.jpg 1310960 http://d30fl32nd2baj9.cloudfront.net/media/2017/03/29/moulvibazar-2.jpg/ALTERNATES/w300/Moulvibazar-2.jpg 2 news-bn বাংলাদেশ 199 1310840 2017-03-28 22:42:44.0 আতিয়া মহলের স্থানে স্থানে বিস্ফোরক
2 2 Home bangladesh_bn বাংলাদেশ news-bn 199 1310966 নিজস্ব প্রতিবেদক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম নিজস্ব প্রতিবেদক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম 2017-03-29 11:18:22.0 2017-03-29 11:18:22.0 ‘সরোয়ার-তামিম গ্রুপের’ ৪ জঙ্গি আটক ‘সরোয়ার-তামিম গ্রুপের’ ৪ জঙ্গি আটক ঢাকার দোহারের বিভিন্ন এলাকা থেকে জেএমবির ‘সরোয়ার-তামিম গ্রুপের’ চার সদস্যকে আটক করার কথা জানিয়েছেন র‌্যাব। ঢাকার দোহারের বিভিন্ন এলাকা থেকে জেএমবির ‘সরোয়ার-তামিম গ্রুপের’ চার সদস্যকে আটক করার কথা জানিয়েছেন র‌্যাব। false http://bangla.bdnews24.com/bangladesh/article1310966.bdnews false http://d30fl32nd2baj9.cloudfront.net/bangla-media/2017/02/23/handcup.jpg/ALTERNATES/w300/handcup.jpg

র‌্যাব-১০ এর অধিনায়ক জাহাঙ্গীর হোসেন মাতুব্বর জানান, মঙ্গলবার দুপুর থেকে রাত পর্যন্ত অভিযান চালিয়ে ওই চারজনকে আটক করা হয়। 

আটক চারজন হলেন- মেসবাহ, মাহফুজ, তাইফুর ও ফয়সল।

জাহাঙ্গীর জানান, বুধবার কারওয়ান বাজারে র‌্যাবের মিডিয়া সেন্টারে সংবাদ সম্মেলন করে  এ বিষয়ে বিস্তারিত তথ্য প্রকাশ করা হবে।

]]>
3 2 Home samagrabangladesh সমগ্র বাংলাদেশ news-district 9945 1310928 কুষ্টিয়া প্রতিনিধি, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম কুষ্টিয়া প্রতিনিধি, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম 2017-03-29 08:46:14.0 2017-03-29 09:01:29.0 কুষ্টিয়ায় ‘বন্দুকযুদ্ধে’ একজন নিহত কুষ্টিয়ায় ‘বন্দুকযুদ্ধে’ একজনের মৃত্যু কুষ্টিয়ার মিরপুর উপজেলায় গোয়েন্দা পুলিশের সঙ্গে কথিত বন্দুকযুদ্ধে একজনের মৃত্যু হয়েছে। কুষ্টিয়ার মিরপুর উপজেলায় গোয়েন্দা পুলিশের সঙ্গে কথিত বন্দুকযুদ্ধে একজনের মৃত্যু হয়েছে। false http://bangla.bdnews24.com/samagrabangladesh/article1310928.bdnews false http://d30fl32nd2baj9.cloudfront.net/bangla-media/2016/01/10/gunfight.jpg/ALTERNATES/w300/gunfight.jpg
জেলা গোয়েন্দা পুলিশের ওসি ছাবিবরুল ইসলাম জানান, বুধবার মধ্যরাতে উপজেলার কুষ্টিয়া-মেহেরপুর সড়কের মশান কালিগাড়া ব্রিজের কাছে গোলাগুলির এ ঘটনা ঘটে।

নিহত রফিকুল ইসলাম রাজবাড়ী জেলার মাছপাড়া গ্রামের আজিজ শেখের ছেলে।

ওসি ইসলাম বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, সড়কে গাছ ফেলে ডাকাতির প্রস্তুতি চলছে এমন খবর পেয়ে গোয়েন্দা পুলিশের একটি দল অভিযান চালায়।

“পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে ডাকাতদল গুলি ছোড়ে। পুলিশ পাল্টা গুলি করলে প্রায় ৩০ মিনিট ধরে বন্দুকযুদ্ধ হয়। একপর্যায়ে ডাকাতদলের অনেকে পালিয়ে গেলেও রফিককে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় পাওয়া যায়। তাকে মিরপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।”

এ সময় তিন পুলিশ সদস্য আহত হলে তাদের প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয় বলে জানান ওসি ইসলাম।

তিনি বলেন, নিহত রফিকের বিরুদ্ধে কুষ্টিয়া ও রাজবাড়ী থানায় ডাকাতি-ছিনতাইসহ একাধিক মামলা রয়েছে।

পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে একটি এলজি, এক রাউন্ড গুলি ও দুটি হাঁসুয়া উদ্ধার করেছে বলেও তিনি জানান।

]]>
1086273 http://d30fl32nd2baj9.cloudfront.net/bangla-media/2016/01/10/gunfight.jpg/ALTERNATES/w300/gunfight.jpg
4 2 Home sport_bn খেলা news-bn 210 1310927 স্পোর্টস ডেস্ক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম স্পোর্টস ডেস্ক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম 2017-03-29 08:44:43.0 2017-03-29 09:23:39.0 নেইমার-কৌতিনিয়োর নৈপুণ্যে ব্রাজিলের দুর্দান্ত জয় নেইমার-কৌতিনিয়োর নৈপুণ্যে ব্রাজিলের দুর্দান্ত জয় প্যারাগুয়েকে হারিয়ে রাশিয়া বিশ্বকাপ বলতে গেলে নিশ্চিত করে ফেলেছে তিতের দল। নেইমার আর ফিলিপে কৌতিনিয়োর নৈপুণ্যে প্যারাগুয়েকে হারিয়ে রাশিয়া বিশ্বকাপ বলতে গেলে নিশ্চিত করে ফেলেছে ব্রাজিল। আনুষ্ঠানিকতা বাকি কেবল কাগজে-কলমে। false http://bangla.bdnews24.com/sport/article1310927.bdnews false http://d30fl32nd2baj9.cloudfront.net/media/2017/03/29/brazil.jpg/ALTERNATES/w300/Brazil.jpg
বাংলাদেশ সময় বুধবার সকালে সাও পাওলোর করিন্থিয়ান্স অ্যারেনায় ৩-০ গোলে জেতে ব্রাজিল। তিতের অধীনে টানা নয়টি ম্যাচ জিতল পাঁচবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়নরা।

প্রথমার্ধে কৌতিনিয়োর গোলে এগিয়ে যাওয়ার পর দ্বিতীয়ার্ধে ব্যবধান বাড়ান এই ম্যাচের অধিনায়ক নেইমার। ম্যাচের শেষ দিকে জয় নিশ্চিত করেন মার্সেলো।

উরুগুয়েকে ৪-১ গোলে উড়িয়ে দেওয়া ম্যাচের শুরুর একাদশের উপরেই ভরসা রেখেছিলেন তিতে। ফুল-ব্যাক দানি আলভেসের নিষেধাজ্ঞার কারণে কেবল একাদশে ঢোকেন করিন্থিয়ান্সের ফাগনার।

নেইমারকে ঠেকাতে শুরু থেকেই ফাউল করতে হয় প্যারাগুয়ের। ষষ্ঠ মিনিটে এরকমই একটি ফাউল থেকে ডি-বক্সের একটু বাইরে থেকে পাওয়া নেইমারের ফ্রি-কিকে পাওলিনিয়োর হেড ক্রসবারের উপর দিয়ে যায়।

ত্রয়োদশ মিনিটে প্যারাগুয়ের গনসালেস বল নিয়ে ডি-বক্সে ঢুকে সামনে শুধু গোলরক্ষককে পেয়েও লক্ষ্যে শট রাখতে পারেননি।

ম্যাচে নেইমারের পাশাপাশি আলো ছড়ানো কৌতিনিয়ো ৩৪তম মিনিটে দুর্দান্ত এক গোলে স্বাগতিকদের এগিয়ে দেন। ডান দিক থেকে বল নিয়ে এগিয়ে গত ম্যাচের হ্যাটট্রিক করা পাওলিনিয়োর সঙ্গে বল দেওয়া-নেওয়া করে ডান পায়ের শটে দূরের পোস্ট দিয়ে জালে পাঠান লিভারপুলের এই ফরোয়ার্ড। ব্রাজিলের হয়ে এটি তার সপ্তম গোল।

দ্বিতীয়ার্ধের চতুর্থ মিনিটে ডি-বক্সের ভেতর থেকে লক্ষ্যভ্রষ্ট শট নিয়ে সুযোগ নষ্ট করেন পাওলিনিয়ো। পরের মিনিটেই কৌতিনিয়োর ক্রসে শুয়ে পড়ে পা বাড়িয়েছিলেন ফাঁকায় থাকা নেইমার। তবে বল যায় পোস্টের বাইরে দিয়ে।

৫৩তম মিনিটে পেনাল্টি থেকে গোলের সুযোগ নষ্ট করেন নেইমার। সময় নিয়ে নেইমারের মারা দুর্বল কিক ডানে ঝাঁপিয়ে ঠেকিয়ে দেন গোলরক্ষক আন্তোনি সিলভা।

প্যারাগুয়ের খেলোয়াড়রা অবশ্য এর মধ্যে ‘ন্যায়বিচার’ খুঁজে নিতে পারেন। যে ট্যাকলে নেইমার পড়ে যাওয়াতে রেফারি স্পটকিকের নির্দেশ দিয়েছিলেন, তা ফাউল ছিল না বলে জোর প্রতিবাদ জানিয়েছিলেন তারা।

৬৪তম মিনিটে ব্রাজিলের দ্বিতীয় গোলটি করে ভুলের একরকম প্রায়শ্চিত্ত করে ফেলেন নেইমার। পাল্টা আক্রমণে বাঁ দিক দিয়ে বল নিয়ে এগিয়ে ডি-বক্সে ঢুকে দুই ডিফেন্ডারকে ফাঁকি দেন তিনি। বলটা এক খেলোয়াড়ের গায়ে লেগে দিক পাল্টানোয় কিছু করার ছিল না গোলরক্ষকের।

জাতীয় দলের হয়ে বার্সেলোনা ফরোয়ার্ডের গোল হলো ৫২টি।

৭২তম মিনিটে আবার বল জালে পাঠিয়ে কর্নার ফ্ল্যাগ তুলে উদযাপনও সেরে ফেলেছিলেন নেইমার। তবে অফসাইডের কারণে সেটি বাতিল হয়।

গ্যালারি জুড়ে শুরু হওয়া দর্শকদের উদযাপন তাতে থামেনি। ৮৫তম মিনিটে কৌতিনিয়োর বাড়ানো বলে পাওলিনিয়োর ফ্লিকে ডি-বক্সের ভেতরে বল পেয়ে গোলরক্ষকের উপর দিয়ে চিপে গোল করেন রিয়াল মাদ্রিদের ডিফেন্ডার মার্সেলো।

তিতের অধীনে টানা নবম জয়ে ১৪ ম্যাচে শীর্ষে থাকা ব্রাজিলের পয়েন্ট হলো ৩৩।

দিনের প্রথম ম্যাচে মেসিকে ছাড়া খেলতে খেলতে নেমে বলিভিয়ার মাঠে ২-০ গোলে হেরে গেছে আর্জেন্টিনা। ১৪ ম্যাচে ২২ পয়েন্ট নিয়ে পঞ্চম স্থানে আছে এদগার্দো বাউসার দল।

হামেস রদ্রিগেসের নৈপুণ্যে একুয়েডরকে ২-০ গোলে হারানো কলম্বিয়ার পয়েন্ট ২৪।

আলেক্সিস সানচেসের রেকর্ড ছোঁয়ার দিন চিলি ৩-১ গোলে হারিয়েছে ভেনেজুয়েলাকে। সান্তিয়াগোতে ফ্রি-কিক থেকে দুর্দান্ত এক গোলে দেশের সর্বোচ্চ গোলদাতা মার্সেলো সালাসের পাশে বসেছেন আর্সেনালের এই ফরোয়ার্ড। দুই জনের গোল এখন ৩৭টি।

]]>
1310926 http://d30fl32nd2baj9.cloudfront.net/media/2017/03/29/brazil.jpg/ALTERNATES/w300/Brazil.jpg 1310931 http://d30fl32nd2baj9.cloudfront.net/media/2017/03/29/01.jpg/ALTERNATES/w300/01.JPG 1310932 http://d30fl32nd2baj9.cloudfront.net/media/2017/03/29/02.jpg/ALTERNATES/w300/02.JPG 1310933 http://d30fl32nd2baj9.cloudfront.net/media/2017/03/29/03.jpg/ALTERNATES/w300/03.JPG 1310934 http://d30fl32nd2baj9.cloudfront.net/media/2017/03/29/04.jpg/ALTERNATES/w300/04.JPG 1310935 http://d30fl32nd2baj9.cloudfront.net/media/2017/03/29/05.jpg/ALTERNATES/w300/05.JPG 1310936 http://d30fl32nd2baj9.cloudfront.net/media/2017/03/29/06.jpg/ALTERNATES/w300/06.JPG 2 news-bn খেলা 210 1310916 2017-03-29 04:03:40.0 বলিভিয়ায় ধরাশায়ী মেসিবিহীন আর্জেন্টিনা
5 2 Home bangladesh_bn বাংলাদেশ news-bn 199 1310884 নিউজ ডেস্ক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম নিউজ ডেস্ক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম 2017-03-29 01:27:39.0 2017-03-29 09:35:23.0 দ. এশিয়ায় ‘সবচেয়ে ব্যয়বহুল’ শহর ঢাকা দ. এশিয়ায় ‘সবচেয়ে ব্যয়বহুল’ শহর ঢাকা ঢাকা দক্ষিণ এশিয়ার সবচেয়ে ব্যয়বহুল শহর বলে একটি জরিপে উঠে এসেছে। ঢাকা দক্ষিণ এশিয়ার সবচেয়ে ব্যয়বহুল শহর বলে একটি জরিপে উঠে এসেছে। false http://bangla.bdnews24.com/bangladesh/article1310884.bdnews false http://d30fl32nd2baj9.cloudfront.net/media/2014/06/04/dhaka-city-top.jpg/ALTERNATES/w300/Dhaka+City+Top.jpg
ইকোনোমিস্ট ইন্টেলিজেন্স ইউনিটের (ইআইইউ) দ্বিবার্ষিক জরিপে এ চিত্র পাওয়া গেছে বলে ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে।

লন্ডনভিত্তিক ইকোনোমিস্ট গ্রুপের রিসার্চ অ্যান্ড অ্যানালাইসিস ইউনিট- ইআইইউ সম্প্রতি কস্ট অব লিভিং সার্ভে ২০১৭ প্রকাশ করে।

বিশ্বের ১৩৩টি শহরে জীবনযাত্রার ব্যয় নিয়ে পরিচালিত ওই জরিপে ঢাকার অবস্থান ৬২তম। অর্থাৎ জীবনযাত্রার ব্যয়ের দিক থেকে বিশ্বের মধ্যমমানের শহর ঢাকা।

দক্ষিণ এশিয়ায় সবচেয়ে বেশি ব্যয়ের শহর হিসেবে ঢাকার পরে আছে শ্রীলঙ্কার রাজধানী কলম্বো, বিশ্বে অবস্থান ১০৮তম। আর নেপালের রাজধানী কাঠমান্ডুর স্থান তালিকার ১১৬ নম্বরে।

১৬০ ধরনের পণ্য ও সেবার দামের ভিত্তিতে তুলনা করে এই তালিকা তৈরি করেছে ইআইইউ। এগুলোর মধ্যে খাবার ও পানীয়, পোশাক, বাড়ি ভাড়া, গৃহস্থালি পণ্য, প্রসাধন সামগ্রী, পরিবহন ব্যয়, স্কুল খরচ, ইউটিলিটি বিল, বিনোদন ব্যয় রয়েছে।

ভারতের রাজধানী নয়া দিল্লি, মুম্বাই, ব্যাঙ্গালুরু, চেন্নাই ও পাকিস্তানের করাচির চেয়ে অনেক বেশি ব্যয়বহুল ঢাকা। তালিকায় সবচেয়ে কম ব্যয়ের ১০ শহরের মধ্যে ভারত ও পাকিস্তানের এই শহরগুলোর অবস্থান।

বিশ্বের সবচেয়ে ব্যয়বহুল শহর হিসেবে উঠে এসেছে সিঙ্গাপুর সিটির নাম। তালিকায় বিশ্বের ব্যয়বহুল শহরগুলোর ছয়টির মধ্যে পাঁচটিই এশিয়ার। সিঙ্গাপুরের পরে রয়েছে হংকং (দ্বিতীয়), টোকিও (চতুর্থ), ওসাকা (পঞ্চম) ও সিউল (ষষ্ঠ)।

ব্যয়ের দিক থেকে তৃতীয় সুইজারল্যান্ডের জুরিখ ইউরোপীয় শহরগুলোর মধ্যে সবচেয়ে বেশি ব্যয়বহুল। উত্তর আমেরিকার শহরগুলোর মধ্যে নিউ ইয়র্ক সবচেয়ে বেশি ব্যয়ের ১০টি শহরের মধ্যে আছে।

জরিপের তথ্য অনুযায়ী, বিশ্বের সবচেয়ে কম ব্যয়ের শহর কাজাখস্তানের আলামাতি।

]]>
797652 http://d30fl32nd2baj9.cloudfront.net/media/2014/06/04/dhaka-city-top.jpg/ALTERNATES/w300/Dhaka+City+Top.jpg
6 2 Home sport_bn খেলা news-bn 210 1310916 স্পোর্টস ডেস্ক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম স্পোর্টস ডেস্ক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম 2017-03-29 04:03:40.0 2017-03-29 08:52:23.0 বলিভিয়ায় ধরাশায়ী মেসিবিহীন আর্জেন্টিনা বলিভিয়ায় ধরাশায়ী মেসিবিহীন আর্জেন্টিনা ভাঙাচোরা দল নিয়ে প্রতিকূল পরিবেশে লড়াই চালিয়ে গেলেও হার এড়াতে পারেনি দুবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়নরা। একেতো লা পাসের উচ্চতার সমস্যা। সঙ্গে যোগ হলো তারকা খেলোয়াড়দের নিষেধাজ্ঞা ও চোট সমস্যা। সব মিলিয়ে ভাঙাচোরা এক দল নিয়েই পরিকল্পনা সাজাতে হয় এদগার্দো বাউসাকে। তাতে প্রতিকূল পরিবেশে লড়াই চালিয়ে গেলেও হার এড়াতে পারেনি মেসিবিহীন আর্জেন্টিনা। false http://bangla.bdnews24.com/sport/article1310916.bdnews false http://d30fl32nd2baj9.cloudfront.net/media/2017/03/29/2017-03-28.jpg/ALTERNATES/w300/2017-03-28.jpg
বাংলাদেশ সময় মঙ্গলবার রাতে বিশ্বকাপ বাছাইপর্বের ম্যাচে বলিভিয়ার মাঠ থেকে ২-০ গোলের হার নিয়ে ফিরেছে আর্জেন্টিনা।

হলুদ কার্ডের নিষেধাজ্ঞা আর চোটের কারণে সেরা একাদশের ছয় জন আগে থেকেই ছিলেন না। সের্হিও আগুয়েরোকেও প্রথম একাদশ থেকে ছেটে ফেলেন কোচ। এত বেশি পরিবর্তনের মাঝে ম্যাচ শুরুর কয়েক ঘণ্টা আগে আসে সবচেয়ে বড় ধাক্কা। চিলির বিপক্ষে সহকারী রেফারির সঙ্গে অসৌজন্যমূলক আচরণ করায় চার ম্যাচের নিষেধাজ্ঞা পান দলের সেরা তারকা লিওনেল মেসি।

বলতে গেলে তাই একরকম দ্বিতীয় সেরা একাদশই মাঠে নামাতে হয় কোচ বাউসাকে। এমন ভাঙাচোরা দলের পারফরম্যান্সেও ছিল মেসিদের না থাকার অভাবটা। ম্যাচের প্রথম ২০ মিনিটে একতরফা আক্রমণ করে গেল বলিভিয়া।

পঞ্চদশ মিনিটে এগিয়ে যাওয়ার সুবর্ণ সুযোগও পেয়ে যায় তারা। কিন্তু ছয় গজ বক্সের মধ্যে হুয়ান কার্লোস আর্সের দুর্বল শট ঠেকিয়ে দেন ডিফেন্ডার মুসাচিও। দুই মিনিট পর রাউল কাস্ত্রোর দূরপাল্লার শট শেষ মুহূর্তে ঠেকিয়ে দেন গোলরক্ষক সের্হিও রোমেরো।

ধীরে ধীরে গুছিয়ে ওঠা আর্জেন্টিনা ২৭তম মিনিটে গোল পেতে পারত। তবে এভার বানেগার দূরপাল্লার শট দারুণ ণৈপুণ্যে কর্নারের বিনিময়ে ঠেকান গোলরক্ষক। পরের মিনিটে আনহেল দি মারিয়ার প্রচেষ্টা রুখে দেন লাম্পে।

এর কিছুক্ষণ পরেই এগিয়ে যায় বলিভিয়া। ডান দিক থেকে পাবলো দানিয়েলের দারুণ ক্রসে অসাধারণ এক হেডে বল জালে পাঠান ফরোয়ার্ড আর্সে।

পিছিয়ে পড়ার পাঁচ মিনিট পর আরেকটি ধাক্কা খায় অতিথিরা। চোট পেয়ে মাঠ ছাড়েন ডিফেন্ডার ফুনেস মোরি। দুবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়নদের শক্তি কমে আরও।

দ্বিতীয়ার্ধের সপ্তম মিনিটে দ্বিতীয় গোল খেয়ে বসে আর্জেন্টিনা। হোর্হে এনরিকের পাস পেয়ে ডান দিক থেকে নীচু শটে গোলরক্ষককে পরাস্ত করেন মার্সেলো মোরেনো।

৫৬তম মিনিটে আনহেল কোররেয়াকে বসিয়ে ম্যানচেস্টার সিটির তারকা ফরোয়ার্ড আগুয়েরোকে নামান কোচ। কিন্তু তিনিও পারেননি দলকে কাঙ্ক্ষিত গোল এনে দিতে।

৬৬তম মিনিটে ব্যবধান বাড়তে পারতো। তবে মার্তিন্সের শট ঠেকিয়ে দলের ম্যাচে ফেরার আশা কিছুটা হলেও বাঁচিয়ে রাখেন ডিফেন্ডার ফাকুন্দো রনকাগলিয়া।

আট মিনিট পর ব্যবধান কমানোর ভালো সুযোগ পায় আর্জেন্টিনা। কিন্তু দি মারিয়ার ক্রস ফাঁকায় পেয়েও লক্ষ্যভ্রষ্ট হেড করেন লুকাস প্রাতো। বাকি সময়েও ম্যাচের চিত্র পাল্টাতে পারেনি পয়েন্ট টেবিলের তৃতীয় স্থানে থেকে খেলতে নামা দলটি।

২০১৮ সালের রাশিয়া বিশ্বকাপের বাছাইপর্বে ১৪ ম্যাচ শেষে আর্জেন্টিনার পয়েন্ট ২২।

]]>
1310915 http://d30fl32nd2baj9.cloudfront.net/media/2017/03/29/2017-03-28.jpg/ALTERNATES/w300/2017-03-28.jpg 1310919 http://d30fl32nd2baj9.cloudfront.net/media/2017/03/29/2-argentina-s-ramiro-funes-.jpg/ALTERNATES/w300/2-Argentina%27s-Ramiro-Funes-.jpg 1310920 http://d30fl32nd2baj9.cloudfront.net/media/2017/03/29/3-arce-celebrates-with-team.jpg/ALTERNATES/w300/3-Arce-celebrates-with-team.jpg 1310921 http://d30fl32nd2baj9.cloudfront.net/media/2017/03/29/4-marcelo-martins-celebrate.jpg/ALTERNATES/w300/4-Marcelo-Martins-celebrate.jpg 1310918 http://d30fl32nd2baj9.cloudfront.net/media/2017/03/29/5-marcelo-martins-celebrate.jpg/ALTERNATES/w300/5-Marcelo-Martins-celebrate.jpg 2 news-bn খেলা 210 1310927 2017-03-29 08:44:43.0 নেইমার-কৌতিনিয়োর নৈপুণ্যে ব্রাজিলের দুর্দান্ত জয়
7 2 Home bangladesh_bn বাংলাদেশ news-bn 199 1310877 মাসুম বিল্লাহ ও কাজী এনামুল হক, কুমিল্লা থেকে বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম মাসুম বিল্লাহ ও কাজী এনামুল হক, কুমিল্লা থেকে বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম 2017-03-29 00:07:56.0 2017-03-29 00:58:17.0 আ. লীগের উন্নয়নে পারের আশায় সীমা, নিজের কাজে ভরসা সাক্কুর আ. লীগের উন্নয়নে পারের আশায় সীমা, নিজের কাজে ভরসা সাক্কুর কুমিল্লা সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনের আনুষ্ঠানিক প্রচারের শেষদিন মঙ্গলবার জমজমাট পরিবেশে ভোটারদের দ্বারে দ্বারে ঘুরে বেড়ান মেয়র ও কাউন্সিলর প্রার্থীরা। দেশব্যাপী সরকারের উন্নয়ন কর্মকাণ্ডে জের ধরে কুমিল্লা সিটি করপোরেশন নির্বাচনে নৌকার জোয়ার দেখছেন আওয়ামী লীগের প্রার্থী আঞ্জুম সুলতানা সীমা। তার প্রধান প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপির মনিরুল হক সাক্কু এই সিটির প্রথম মেয়র হিসেবে করা কাজের ধারাবাহিকতা ধরে রাখতে নগরবাসীর সমর্থন চাইছেন। false http://bangla.bdnews24.com/bangladesh/article1310877.bdnews false http://d30fl32nd2baj9.cloudfront.net/media/2017/03/29/comilla-02.jpg/ALTERNATES/w300/Comilla-02.jpg
এই সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে আনুষ্ঠানিক প্রচারের শেষদিন মঙ্গলবার জমজমাট পরিবেশে ভোটারদের দ্বারে দ্বারে ঘুরে বেড়ান মেয়র ও কাউন্সিলর প্রার্থীরা। ভোটারদের কাছে গিয়ে নিজস্ব প্রতীকে সমর্থন চাওয়ার পাশাপাশি দিয়েছেন শেষ সময়ের নানা প্রতিশ্রুতি।

রিকশা কিংবা অটোরিক্সায় চড়া মাইকে স্লোগান আর গানে পুরো সিটি কর্পোরেশন এলাকা সরগরম ছিল অন্যান্য দিনের মতো; ওয়ার্ডে ওয়ার্ডে প্রার্থীর পক্ষে শেষদিনের মিছিলে উৎসবমুখর দেখা গেছে সমর্থকদের।

সকাল ৯টায় ‘দ্বিতীয় মুরাদপুর’ এলাকা দিয়ে শেষ দিনের প্রচার শুরু করেন নৌকার প্রার্থী সীমা। সেখানে আগে থেকে জড়ো হওয়া ভোটারদের সামনে গিয়ে হ্যান্ডমাইকে বক্তব্য দিয়ে এবং প্রচারপত্র বিতরণ করে গণসংযোগের কাজ শেষ করেন তিনি।

এরপর একই ধরনের গণসংযোগে সময় পার করেন দক্ষিণ ঠাকুরপাড়া ও শাকতলা এলাকায়।

গণসংযোগ চলার মধ্যে গৌবিন্দপুর ও অশোকতলা এলাকায় দুটি উঠান বৈঠক করেন আওয়ামী লীগের এই মেয়র প্রার্থী।

এর আগের উঠান বৈঠকগুলোতে নারী-পুরুষের জন্য আলাদা আলাদা ব্যবস্থা থাকলেও শেষদিন একসঙ্গে নিয়ে মানুষের সমস্যার কথা শুনে তাদের কাছে ভোট চান সীমা।

গণসংযোগের মধ্যে সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, নির্বাচনের পরিবেশ সুন্দর ও সু্ষ্ঠু আছে।

বিএনপির বিভিন্ন অভিযোগকে ‘কেবল অভিযোগের জন্য অভিযোগ’ বলে উড়িয়ে দেন তিনি।

বিলুপ্ত কুমিল্লা পৌরসভায় দীর্ঘদিন ভারপ্রাপ্ত মেয়রের দায়িত্ব পালন করা সীমা বলেন, “দেশব্যাপী শেখ হাসিনার উন্নয়নের জোয়ারে কুমিল্লায় নৌকার জোয়ার বইছে। কুমিল্লায় নৌকার গণজোয়ার সৃষ্টি হয়েছে।”

বিএনপি প্রার্থীর পক্ষ থেকে মিছিলে বাধা দেওয়ার যে অভিযোগ করা হয়েছে তা নাকচ করে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের এই নেতা বলেন, “তারা কেবল অভিযোগ করার জন্যই অভিযোগ করছে।”

বিকাল সাড়ে ৪টায় নগরীর কাসেমুল উলুম মাদরাসার শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের সঙ্গে মতবিনিময় ও ভোট চাওয়ার মধ্য দিয়ে শেষদিনের প্রচার শুরু করেন বিএনপির মনিরুল হক সাক্কু।

তারপর রানীবাজার মাদ্রাসায় গিয়ে একই কায়দায় ধানের শীষের পক্ষে ভোট চান কুমিল্লা সিটির প্রথম এই মেয়র।

সন্ধ্যায় উঠান বৈঠক করেন নগরীর রেসকোর্স এলাকায়। সেখানে মানুষের বক্তব্য শুনে ‘যে উন্নয়ন তিনি করেছেন’ সেগুলো এগিয়ে নিতে পুনরায় সমর্থন চান এই প্রার্থী।

গণসংযোগের মধ্যে বিকালে নানুয়া দিঘিরপাড় এলাকায় নিজের বাসায় সাক্কু সাংবাদিকদের বলেন, “এখন পর্যন্ত নির্বাচন কমিশন যা পদক্ষেপ নিচ্ছে তা ঠিক আছে। তবে এই কার্যক্রম যদি নির্বাচনের দিন পর্যন্ত থাকে তাহলে ভোটের বিপ্লব ঘটবে।

“জনগণ আমাকে ভোট দিলে আমাকে দিক, সীমাকে ভোট দিলে সীমাকে দিক। মানুষ যেন নিজের ভোটটা দিতে পারে।”

এই নির্বাচনে মেয়র পদে আরও দুজন লড়ছেন। তারা হলেন- জেএসডির শিরিন আখতার ও স্বতন্ত্র প্রার্থী মামুনুর রশীদ।

এখন পর্যন্ত নির্বাচনী পরিবেশ সুষ্ঠু থাকার কথা প্রার্থী ও নির্বাচন কর্মকর্তার মুখ থেকে এলেও ভোটারদের মধ্যে চাপা আতঙ্ক এখনো রয়েছে।

নগরীর রানীর বাজার এলাকায় কথা হয় শাসনগাছা এলাকার ভোটার মো. সৈকতের সঙ্গে; বিভিন্ন এলাকায় ‘সন্ত্রাসীরা’ কাউন্সিলর প্রার্থী হওয়ায় সংঘাতের আশঙ্কা করেন এই রিকশা চালক।

তিনি বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, “পরিস্থিতি ভালো। তবে ভোটের দিন এটা থাকবে বলে মনে হয় না। ভোট দিতে যাব কি না চিন্তায় আছি। এমন থাকলে যাব।”

এদিন গাড়ি ভাংচুর ও শিশু গুলিবিদ্ধের ঘটনায় একজন কাউন্সিলর প্রার্থীকে পুলিশ গ্রেপ্তার করে। তবে আদালত থেকে জামিনে ছাড়া পেয়েছেন তিনি।

ভোটারদের আতঙ্ক কাটাতে সুষ্ঠু নির্বাচনের সব ধরনের প্রস্তুতি নেওয়ার কথা বলেছেন নির্বাচনে রিটার্নিং কর্মকর্তা রকিব উদ্দিন মণ্ডল।

মঙ্গলবার সন্ধ্যায় তিনি বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, “সর্বশেষ পরিস্থিতি অত্যন্ত ভালো। এখন পর্যন্ত নির্বাচন ঘিরে অপ্রীতিকর কোনো ঘটনা ঘটেনি। বিজিবি, র‌্যাব, পুলিশ, আনসারসহ পর্যাপ্ত আইন-শৃঙ্খলাবাহিনী মোতায়েন আছে। ভোটের শেষ সময় পর্যন্ত পরিস্থিতি শান্ত রাখার কাজ আমরা করে যাব।”

নির্বাচন ঘিরে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর তিন হাজার ৯০০ সদস্য মোতায়েন রয়েছে বলে জানান রকিব উদ্দিন।

আওয়ামী লীগ ও বিএনপির পক্ষ থেকে যথাক্রমে ৩৭ ও ৪৩টি কেন্দ্রকে ‘ঝুঁকিপূর্ণ’ হিসাবে চিহ্নিত করে সোমবার নির্বাচন কমিশনে চিঠি দেওয়ার কথা এসেছে বিভিন্ন গণমাধ্যমে।

এ প্রসঙ্গে রিটার্নিং কর্মকর্তা বলেন, “কোনো ঝুঁকিপূর্ণ কেন্দ্র নাই। ১০৩টি কেন্দ্রকেই আমরা গুরুত্বপূর্ণ কেন্দ্র হিসাবে বিবেচনা করছি। পরিস্থিতি বুঝে ‍সব জায়গায় পদক্ষেপ নেওয়া হবে।”

আচরণবিধি লঙ্ঘনের কোনো অভিযোগ মঙ্গলবার সন্ধ্যা পর্যন্ত পাননি বলে জানান তিনি।

নির্বাচন ঘিরে কড়া নিরাপত্তা ব্যবস্থা দেখা গেছে নগরীর বিভিন্ন এলাকায়; পুলিশ সদস্যদের উপস্থিতির পাশাপাশি আছে বিজিবি ও র‌্যাব সদস্যদের টহল।

সন্ধ্যায় টাউন হলের সামনে ব্রিফিংয়ে বিজিবি’র কুমিল্লা সেক্টর কমান্ডার কর্নেল গাজী আহসান উজ্জামান বলেন, “নির্বাচনে বেসামরিক প্রশাসনকে সহায়তার জন্য কাল থেকে আমাদের ২৬ প্লাটুন বিজিবি সদস্য মোতায়েন রয়েছে। আজ সারাদিন আমরা পুরো এলাকায় পরিচিতি করেছি। বিজিবি স্ট্রাইকিং ফোর্স হিসাবে কাজ করবে, সাথে ম্যাজিস্ট্রেট আছেন, তারা আমাদের সহায়তা প্রদান করবেন।

“এছাড়া কুমিল্লা শহর যেহেতু সীমান্তবর্তী শহর সেটাকে মাথায় রেখে এলাকায় আমাদের যেসব চৌকি রয়েছে সেগুলোকে জোরদার করা হয়েছে, যাতে কেউ সীমান্ত এলাকাকে নেতিবাচকভাবে নির্বাচনে ব্যবহার করতে না পারে।”

তিনি বলেন, “এখন পর্যন্ত খারাপ কোনো খবর নেই। কেউ যাতে পরিস্থিতি ঘোলাটে বা নষ্ট করতে না পারে সেজন্য সর্বাত্মক প্রস্তুতি আমাদের রয়েছে। নির্বাচন সুষ্ঠু করার জন্য সব চেষ্টা অব্যাহত থাকবে।”

বিকালে দোকান মালিক সমিতি ফেডারেশনের পক্ষ থেকে মাইকিং করে বৃহস্পতিবার ভোটের দিন সব দোকান বন্ধ রাখার অনুরোধ জানানো হয়েছে কুমিল্লা শহরে।

কুমিল্লা সিটি করপোরেশনে মোট ওয়ার্ড ২৭টি। ভোটার রয়েছে দুই লাখ সাত হাজার ৫৬৩ জন।

কাউন্সিলর প্রার্থী গ্রেপ্তার, জামিনে মুক্ত

সোমবার রাতে গাড়ি ভাংচুর ও মঙ্গলবার ভোরে এক শিশু গুলিবিদ্ধ হওয়ার ঘটনায় ২৫ নম্বর ওয়ার্ডে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী জিল্লুর রহমান জিলানীকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

পুলিশ জিলানীকে আদালতে পাঠালে তিনি জামিন পান বলে জানান সদর দক্ষিণ থানার ওসি সজল কুমার কানু।

স্থানীয়রা জানান, সোমবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে গ্রামচৌয়ারা এলাকায় ২৫ নম্বর ওয়ার্ডে কাউন্সিলর প্রার্থী খলিল মজুমদারের বাড়ির সামনে তার ভাতিজা আবুল কালাম মজুমদারের মাইক্রোবাস ভাংচুরের ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় প্রতিদ্বন্দ্বী কাউন্সিলর প্রার্থী জিল্লুর রহমান জিলানীসহ চারজনকে আসামি করে মামলা দায়ের করেন খলিল।

এরপর মঙ্গলবার ভোর পৌনে ৫টার দিকে মসজিদের পথে গ্রামচৌয়ারার চৌধুরী বাড়ির সামনে ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি মমিন চৌধুরীর নাতি আবু সাঈদ অনিক (১৪) গুলিবিদ্ধ হন।

ভাংচুরের ঘটনায় মামলার জেরে গুলিবিদ্ধ হওয়ার ঘটনা ঘটেছে বলে সন্দেহ অনিকের মা সাবিনা বেগমের। তার বাবা মমিন চৌধুরী কাউন্সিলর প্রার্থী খলিলকে সমর্থন দেওয়ায় প্রতিদ্বন্দ্বী জিলানীর সমর্থকরা এই ঘটনা ঘটিয়েছে বলে অভিযোগ করেন তিনি।

অন্যদিকে আওয়ামী লীগ প্রার্থী আঞ্জুম সুলতানা সীমা অভিযোগ করেন, বিএনপির লোকজনই আওয়ামী লীগ নেতার নাতিকে গুলি করেছে।

]]>
1310880 http://d30fl32nd2baj9.cloudfront.net/media/2017/03/29/comilla-02.jpg/ALTERNATES/w300/Comilla-02.jpg 1310875 http://d30fl32nd2baj9.cloudfront.net/media/2017/03/29/comilla-vote.jpg/ALTERNATES/w300/Comilla-Vote.jpg 1310881 http://d30fl32nd2baj9.cloudfront.net/media/2017/03/29/comilla-01.jpg/ALTERNATES/w300/Comilla-01.jpg 1310876 http://d30fl32nd2baj9.cloudfront.net/media/2017/03/29/sima.jpg/ALTERNATES/w300/Sima.jpg 1310878 http://d30fl32nd2baj9.cloudfront.net/media/2017/03/29/comilla-vote1.jpg/ALTERNATES/w300/Comilla-vote1.jpg
8 2 Home bangladesh_bn বাংলাদেশ news-bn 199 1310840 মঞ্জুর আহমেদ, সিলেট প্রতিনিধি বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম মঞ্জুর আহমেদ, সিলেট প্রতিনিধি বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম 2017-03-28 22:42:44.0 2017-03-29 11:01:20.0 আতিয়া মহলের স্থানে স্থানে বিস্ফোরক আতিয়া মহলের স্থানে স্থানে বিস্ফোরক সিলেটের দক্ষিণ সুরমার শিববাড়ি এলাকার পাঁচতলা ওই বাড়িটিতে চার দিনের ‘অপারেশন টোয়াইলাইট’র আনুষ্ঠানিক সমাপ্তি ঘোষণা করেছে সেনাবাহিনী। আতিয়া মহলের ভেতরে থাকা জঙ্গিরা বাড়িটির স্থানে স্থানে বিস্ফোরক বসিয়ে কমান্ডোদের অভিযানকে ঝুঁকিপূর্ণ করে তুলছিল বলে জানিয়েছে সেনাবাহিনী। false http://bangla.bdnews24.com/bangladesh/article1310840.bdnews false http://d30fl32nd2baj9.cloudfront.net/media/2017/03/28/operation-twilight-2-.jpg/ALTERNATES/w300/Operation+twilight+%282%29.jpg আতিয়া মহলে তল্লাশিতে সেনা সদস্যরা
সিলেটের দক্ষিণ সুরমার শিববাড়ি এলাকার পাঁচতলা ওই বাড়িটিতে চার দিনের ‘অপারেশন টোয়াইলাইট’র আনুষ্ঠানিক সমাপ্তি ঘোষণা করে মঙ্গলবার এই তথ্য জানান সামরিক গোয়েন্দা পরিদপ্তরের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল ফখরুল আহসান।

জালালাবাদ সেনানিবাসে এই সংবাদ সম্মেলনের কয়েক ঘণ্টা আগেই ওই বাড়িটি পুলিশকে বুঝিয়ে দেয় সেনাবাহিনী। তখনও ভেতরে ছিল দুটি লাশ। নিহত অন্য দুজনের লাশ আগের দিনই পুলিশকে দেওয়া হয়।

সোমবারই বাড়িটির নিয়ন্ত্রণ নেওয়ার পাশাপাশি ভেতরে চার জঙ্গির মারা পড়ার তথ্য জানিয়েছিলেন ব্রিগেডিয়ার ফখরুল। নিহত এক নারী ও তিন পুরুষের কারও পরিচয় নিশ্চিত হওয়া যায়নি।

গত বছর হলি আর্টিজানে বেকারির পর প্রথম কমোন্ডো অভিযানটি মূলত সোমবার শেষ হলেও তল্লাশি করে নিশ্চিত হওয়ার জন্য একদিন সময় নেওয়া হয় বলে সেনাবাহিনীর সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়।

গত বৃহস্পতিবার গভীর রাতে জঙ্গি আস্তানা সন্দেহে ঘিরে ফেলার পরপরই গ্রেনেড ছুড়ে নিজেদের অস্তিত্বের জানান দিয়েছিল জঙ্গিরা। পরে সেনা অভিযানের মধ্যেও তাদের হাতে প্রচুর বিস্ফোরক থাকার প্রমাণ মেলে।

ব্রিগেডিয়ার ফখরুল বলেন, “জঙ্গিরা ভবনের মূল ফটকে বিশাল আকৃতির বিস্ফোরক স্থাপন করে। এমনকি একটি ফ্রিজ ও মোটর সাইকেলেও বিস্ফোরক লাগিয়ে প্রতিবন্ধকতা তৈরি করে। এছাড়া পুরো ভবনের সিঁড়িসহ বিভিন্ন জায়গায় বিস্ফোরক স্থাপন করে পুরো ভবনটিকে অতিমাত্রায় বিপজ্জনক করে ফেলে।”

কত কেজি বিস্ফোরক ভেতরে পাওয়া গেছে- সাংবাদিকদের প্রশ্নে তিনি বলেন, “তা নিশ্চিত করে বলা কঠিন। তবে বিস্ফোরকের মাত্রা হয়ত আপনারা দূর থেকে টের পেয়েছেন।

“একটা বিস্ফোরণে সামনের কলাপসিবল গেইট উড়ে এসে পাশের বিল্ডিংয়ে পড়েছে। পুরো ভবনটা এখন নড়বড়ে হয়ে গেছে।”

সোমবারও তিনি বলেছিলেন, “সার্বিক যে অবস্থাটা দেখলাম, যে একটা রুমের ভেতরে একটা ডেডবটি, তার পাশেই ছড়ানো ছিটানো আইইডি (ইমপ্রোভাইসড এক্সপ্লোসিভ ডিভাইস) লাগানো রয়েছে।

“পুরো বিল্ডিংটায় যে পরিমাণ এক্সপ্লোসিভ আছে এগুলো যদি বিস্ফোরণ হয় তাহলে এই বিল্ডিংয়ের অংশ বিশেষ ধ্বংস হয়ে যেতে পারে। যে অবস্থায় আছে, এটা খুব ঝুঁকিপূর্ণ এবং সতর্কতার সঙ্গে কাজ করতে হচ্ছে।”

‘অপারেশন টোয়াইলাইট’র আনুষ্ঠানিক সমাপ্তি ঘোষণার সংবাদ সম্মেলন

‘অপারেশন টোয়াইলাইট’র আনুষ্ঠানিক সমাপ্তি ঘোষণার সংবাদ সম্মেলন

জঙ্গিরা সুইসাইড ভেস্ট পরে ছিল বলেও জানান ব্রিগেডিয়ার ফখরুল। কমান্ডোরা একজনকে গুলি করার পর তিনি সঙ্গে বাঁধা বিস্ফোরকে নিজেকে উড়িয়ে দিয়েছিলেন বলে জানান তিনি।

এত বিস্ফোরক বসালো কখন- প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন, “রাতের দেড়টার দিকে তাদের কর্ডন করা হল। তারপর তারা একটা বড় সময় পেয়েছে। এই সময়ের মধ্যে পুরো বিল্ডিংয়ে বিস্ফোরক বসিয়েছে। তবে কখন কী করেছে, তা তো আর দেখিনি।”

মঙ্গলবার বাড়িটির দোতলা, তিন তলা, চার তলায় ১০টি স্থানে বসানো বিস্ফোরক নিস্ক্রিয় করা হয়েছে বলে জানান তিনি।

“সারা ভবনের বিভিন্ন জায়গায় ছিল। সঠিক সংখ্যা এই মুহূর্তে বলতে পারব না। এখনও বিস্ফোরক আছে। ডিটেইলড তল্লাশি হবে।”

দক্ষ ছিল জঙ্গিরা

পরিচয় জানা না গেলেও যে জঙ্গিরা আতিয়া মহলে ছিল, তারা বিস্ফোরক ব্যবহারে বেশ দক্ষ বলে মনে করেন ব্রিগেডিয়ার জেনারেল ফখরুল আহসান।

তিনি বলেন, “আমরা আগেই বলেছি, আমাদের ধারণা হয়েছে, জঙ্গিরা বেশ প্রশিক্ষিত। তাদের কাছে বিশাল পরিমাণে বিস্ফোরক ছিল। সেগুলো ব্যবহার করে পুরো ভবনটাকে তারা ঝুঁকিপূর্ণ করে দিয়েছে।”

“পুরো একটা ফ্রিজকে তারা বিস্ফোরক হিসাবে তৈরি করেছে। তাদের এ বিষয়ে যথেষ্ট দক্ষতা আছে বলে আমি মনে করি।”

সেনা কর্মকর্তা ফখরুল দুদিন আগেও এই জঙ্গিদের বিস্ফোরক ব্যবহারে দক্ষতার কথা বলতে গিয়ে কমান্ডোদের ছোড়া গ্রেনেড ধরে পাল্টা হামলার কথা বলেছিলেন।

অ্যাম্বুলেন্সে দুই জঙ্গির লাশ

অ্যাম্বুলেন্সে দুই জঙ্গির লাশ

তিনি বলেন, “এত এক্সপ্লোসিভ রেডিমেইড অবস্থায় আসে না। এটা কীভাবে তৈরি করতে হয়, সে বিষয়ে জ্ঞান থাকতে হয়। কত মাত্রার কী পরিমাণ মেটেরিয়াল যোগ করা হল, সেগুলো দিয়ে বিভিন্নভাবে একটু তৈরি করা হয়। এগুলোকে আবার বিভিন্নভাবে সুইচ যোগ করা হয়। এভাবে অনেক কিছু হয়। ডেফিনেটলি ঘরে বসেই তারা এগুলো তৈরি করেছে।”

এই জঙ্গিরা বাইরে থেকে প্রশিক্ষণ নিয়েছিল কি না- প্রশ্ন করা হলে ব্রিগেডিয়ার ফখরুল বলেন, “এটা বলা মুশকিল। বাইরে কোত্থেকে প্রশিক্ষণ নেবে? এরকম কোনো উচ্চতর প্রশিক্ষণের জায়গা আমাদের জানা নাই।”

এই বাড়িটির মালিক উস্তার আলীর তথ্য অনুযায়ী, নিচ তলার একটি ফ্ল্যাট কাউছার আলী ও মর্জিনা বেগম নামে এক দম্পতি তিন মাস আগে ভাড়া নিয়ে জঙ্গি আস্তানা গড়ে তুলেছিলেন।

ঘিরে ফেলার পরদিন পুলিশের আত্মসমর্পণের আহ্বানে সাড়া না দিয়ে তারা উল্টো সোয়াট বাহিনীকে পাঠাতে বলেছিল।

আতিয়া মহলে অভিযানের মধ্যে কাছেই একটি স্থানে দুটি বোমার বিস্ফোরণ ঘটে, যে হামলার দায় স্বীকার করে আইএসের নামে ইন্টারনেটে বার্তা এলেও তা সরকারের পক্ষ থেকে নাকচ করা হয়।

জিম্মিদের অক্ষত উদ্ধার ছিল অগ্রাধিকারে

এই অভিযানের ক্ষেত্রে ভবনটিতে আটকেপড়াদের নিরাপদে উদ্ধারকেই অগ্রাধিকার দিয়ে কাজ শুরু হয়েছিল বলে জানান ব্রিগেডিয়ার ফখরুল।

জঙ্গি আস্তানায় আটকে পড়েছিল এই শিশুটি; তাকে কোলে করে বের করে আনেন এক সেনা কমান্ডো

জঙ্গি আস্তানায় আটকে পড়েছিল এই শিশুটি; তাকে কোলে করে বের করে আনেন এক সেনা কমান্ডো

পাঁচ তলা বাড়িটির প্রতি তলায় ছয়টি করে মোট ৩০টি ফ্ল্যাট রয়েছে। ২৮টি ফ্ল্যাটে বাসিন্দারা তাদের পরিবার-পরিজন নিয়ে আটকা পড়েছিলেন।

পুলিশ তাদের দরজা-জানালা বন্ধ করে রাখতে বলেছিল। পরে সেনা কমান্ডোদের অভিযানের প্রথম দিন আটকেপড়া ৭৮ জনকে অক্ষত অবস্থায় উদ্ধার করে আনা হয়।

ব্রিগেডিয়ার ফখরুল বলেন, “অপারেশনের প্রথম পর্বটি ছিল সবচেয়ে ঝুঁকিপূর্ণ। কমান্ডোরা তাদের জীবন বাজি রেখে অত্যন্ত সাহসিকতার সাথে অভিনব কৌশল প্রয়োগের মাধ্যমে ২৫ মার্চ আনুমানিক দুপুর ১টার মধ্যে ভবন থেকে ৩০ জন পুরুষ, ২৭ জন মহিলা ও ২১ জন শিশুসহ মোট ৭৮ জনকে নিরাপদে উদ্ধার করে।”

বৈরী আবহাওয়া মধ্যে এই অভিযান চালানোর কথা তুলে ধরে তিনি বলেন, “পাঁচতলা থেকে দোতলা পর্যন্ত উদ্ধার কাজ অত্যন্ত সন্তর্পণে সম্পন্ন করা সম্ভব হয়। নিচতলার উদ্ধার অভিযান ছিল সবচেয়ে ঝুঁকিপুর্ণ। কমান্ডো সদস্যরা অত্যন্ত সাহসিকতার সাথে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে অভিনব পন্থা অবলম্বন করে সকল বাসিন্দাকে নিরাপদে সরিয়ে আনে।”

কেন সেনাবাহিনী?

গত বছরের জুলাইয়ে গুলশানে হলি আর্টিজান বেকারিতে হামলার পর টানা কয়েকটি এবং সম্প্রতি সীতাকুণ্ডেও র‌্যাব-পুলিশ-সোয়াট অভিযান চালালেও সিলেটের এই অভিযান চালিয়েছিল সেনাবাহিনী।

শুরুতে পুলিশ ঘিরে ফেলার পর কাউন্টার টেররিজম ইউনিট ও সোয়াট অভিযান শুরুর পর প্রস্তুতি নিয়েছিল। কিন্তু পরিস্থিতি বেগতিক দেখার পর সেনাবাহিনীকে অভিযানের দায়িত্ব দেওয়া হয় বলে সেনা কর্মকর্তারা জানান।

এর কারণ ব্যাখ্যা করে ব্রিগেডিয়ার ফখরুল বলেন, “পুলিশ বাহিনীর সদস্যরা দেশব্যাপী অনেক সফল অভিযান পরিচালনা করছেন। ১৫ মার্চে সীতাকুণ্ডে অলমোস্ট সিমিলার একটা অভিযান তারা করেছেন।

“তবে এখানে এসে যেই অবস্থাটা দেখেছেন সেখানে তাদের বিবেচনা হয়েছে যে, তাদের যে এক্সপার্টাইজ আছে, তার থেকে সেনাবাহিনীর এক্সপার্টাইজ ব্যবহার করলে সফলভাবে অপারেশনটা পরিচালনা করা যাবে।”

অভিযানে সেনা সদস্যরা

অভিযানে সেনা সদস্যরা

“বিশেষ করে যে ৭৮ জন বাসিন্দা ওই বাসায় ছিলেন, তাদের নিরাপত্তা বিবেচনায়, তাদেরকে ওখান থেকে বের করে নিয়ে আসাটা ছিল সবচেয়ে ঝুঁকিপূর্ণ কাজ। সেজন্য আমি বলছি যে অনেক কেয়ারফুললি, টেকনিক ফলো করে অভিযানটা পরিচালনা করতে হয়েছে। যাতে আলটিমেটলি সেনাবাহিনীকে ইনভলব করতে হয়েছে।”

পুলিশ তাদের পর্যবেক্ষণ ও বিচার-বিশ্লেষণ শেষে বাসিন্দাদের নিরাপত্তা, বিস্ফোরক ঝুঁকি ইত্যাদি বিবেচনা করে সেনাবাহিনীর সহায়তা কামনা করেন বলে জানান ব্রিগেডিয়ার ফখরুল।

অভিযানে সময় লাগার বিষয়ে তিনি বলেন, “৫ তলা একটা ভবন, ৩০টা ফ্ল্যাট, সেখানে ১৫০টার মতো কক্ষ। এখানে কোথায় কোন অবস্থায় কোথায় লুকিয়ে আছে, কী অবস্থায় আছে, তা বুঝতে প্রতিটা স্টেপ ছিল ঝুঁকিপূর্ণ। সেজন্য আমি বলেছি, যে অপারেশনটা একটা বিশেষ গুরুত্ব বহন করে।”

প্রধানমন্ত্রীর সুনির্দিষ্ট দিক-নির্দেশনার আলোকে সেনাবাহিনী এই অভিযানের পরিকল্পনা প্রণয়ন করেছিল বলে জানান এই সেনা কর্মকর্তা।

পুরো অভিযানে পুলিশ, র‌্যাব, ফায়ার সার্ভিস, বিভিন্ন সেবা প্রদানকারী সংস্থা, স্থানীয় প্রশাসনসহ এলাকাবাসীর সহায়তার জন্য কৃতজ্ঞতাও প্রকাশ করেন ব্রিগেডিয়ার ফখরুল।

“অপারেশন টোয়াইলাইট যে কোনো পরিস্থিতি মোকাবেলায় সামরিক ও বেসামরিক প্রশাসনের সমন্বিত প্রচেষ্টার একটি মাইলফলক হয়ে থাকবে বলে সেনাবাহিনী বিশ্বাস করে।”

]]>
1310625 http://d30fl32nd2baj9.cloudfront.net/media/2017/03/28/operation-twilight-2-.jpg/ALTERNATES/w300/Operation+twilight+%282%29.jpg আতিয়া মহলে তল্লাশিতে সেনা সদস্যরা 1310844 http://d30fl32nd2baj9.cloudfront.net/media/2017/03/28/sylhet-army-press-2.jpg/ALTERNATES/w300/sylhet-Army-Press-2.jpg ‘অপারেশন টোয়াইলাইট’র আনুষ্ঠানিক সমাপ্তি ঘোষণার সংবাদ সম্মেলন 2 news-bn বাংলাদেশ 199 1309955 2017-03-27 16:40:40.0 ‘অপারেশন টোয়াইলাইটের’ ভিডিও 2 news-bn বাংলাদেশ 199 1309702 2017-03-26 21:07:31.0 ছবিতে জিম্মিদের উদ্ধার 2 news-bn বাংলাদেশ 199 1308664 2017-03-25 03:52:22.0 শিববাড়িতে অভিযানের অপেক্ষায় নতুন সকাল 2 news-district সমগ্র বাংলাদেশ 9945 1308342 2017-03-24 15:37:25.0 দেরি কিসের, সোয়াট পাঠাও, বললো ‘জঙ্গি’ 2 news-bn বাংলাদেশ 199 1308693 2017-03-25 09:25:29.0 অভিযান শেষ হয়নি, ৭৮ জনকে উদ্ধার 2 news-bn বাংলাদেশ 199 1310146 2017-03-27 19:46:13.0 জঙ্গি আস্তানা সেনা নিয়ন্ত্রণে, ভেতরে ৪ লাশ 2 news-district সমগ্র বাংলাদেশ 9945 1308959 2017-03-25 20:08:04.0 ‘নিচেই জঙ্গি আস্তানা জানার পর আরও আতঙ্কে ছিলাম’ 2 news-bn বাংলাদেশ 199 1310626 2017-03-28 18:33:06.0 আতিয়া মহল পুলিশের হাতে 2 news-district সমগ্র বাংলাদেশ 9945 1310555 2017-03-28 17:38:05.0 নারী জঙ্গির মৃত্যু ‘আগুনে পুড়ে’, পুরুষটি ‘বিস্ফোরণে’ 2 news-bn সমগ্র বাংলাদেশ 9945 1310277 2017-03-27 23:04:26.0 চেনা রূপে ফেরার অপেক্ষায় শিববাড়ি
9 2 Home bangladesh_bn বাংলাদেশ news-bn 199 1310821 জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম 2017-03-28 21:53:36.0 2017-03-28 21:54:58.0 অধিক সমালোচনাই ১৫ অগাস্টের পথ করে দেয়: হাসিনা অধিক সমালোচনাই ১৫ অগাস্টের পথ করে দেয়: হাসিনা স্বাধীনতা পরবর্তীতে যুদ্ধবিধ্বস্ত বাংলাদেশ পুনর্গঠনে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে সময় দেওয়া হয়নি মন্তব্য করে এর জন্য সে সময় সরকারের সমালোচকদের দায়ী করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। স্বাধীনতা পরবর্তীতে যুদ্ধবিধ্বস্ত বাংলাদেশ পুনর্গঠনে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে সময় দেওয়া হয়নি মন্তব্য করে এর জন্য সে সময় সরকারের সমালোচকদের দায়ী করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। false http://bangla.bdnews24.com/bangladesh/article1310821.bdnews false http://d30fl32nd2baj9.cloudfront.net/media/2017/03/28/pm_jail-story.jpg/ALTERNATES/w300/PM_jail-Story.jpg
তিনি বলেছেন, “অল্প সময়ের মধ্যে একটা যুদ্ধ-বিধ্বস্ত দেশ গড়ে তোলা এত সহজ কাজ ছিল না। কিন্তু এখন আমার মাঝে মাঝে এটাই দুঃখ হয়, তখনতো কেউ সময় দেয়নি।

“কত সমালোচনা! এটা হল না, ওটা হল না, নানা ধরনের কথা, কত কিছু। মনে হল যেন, সেই সময় ওনার বিরুদ্ধে সমালোচনা করতে করতে স্বাধীনতার পরাজিত শক্তি, তাদের হাতকেই যেন শক্তিশালী করে দিল।

শেখ হাসিনা বলেন, “আর এখন আমার মাঝে মাঝে এইটেই মনে হয়, এই যে তার বিরুদ্ধে নানা সমালোচনা, নানা কথা লেখার মধ্য দিয়ে তার জীবনটাকে কেড়ে নেওয়ার পথটা অর্থাৎ ১৫ আগস্ট ঘটানোর একটা যেন পটভূমি তৈরি করে দিয়েছিল অনেকেই। পরবর্তীতে তারা হয়ত উপলব্ধি করতে পেরেছিলেন কী তারা হারিয়েছিলেন।”

স্বাধীনতার পর পাকিস্তানের বন্দিশালা থেকে মুক্ত হয়ে ১৯৭২ সালের ১০ জানুয়ারি দেশে ফেরেন শেখ মুজিবুর রহমান। রাষ্ট্র পরিচালনার দায়িত্ব নিয়ে দেশ পুনর্গঠনে মনোযোগ দেন তিনি।

সাড়ে চার বছরের মাথায় ১৯৭৫ সালের ১৫ অগাস্ট একদল সেনা সদস্যের হাতে পরিবারের অধিকাংশ সদস্যসহ নিহত হন রাষ্ট্রপতি শেখ মুজিব।

বাঙালির স্বাধীনতা আন্দোলনের নেতৃত্ব দেওয়া বঙ্গবন্ধুর জীবনের একটি বড় সময় কেটেছে কারাগারে। বন্দি দশায় তার লেখা দিনলিপি নিয়ে প্রকাশিত ‘কারাগারের রোজনামচা’ বইয়ের প্রকাশনা উৎসব হয় মঙ্গলবার।

রাজধানীর কৃষিবিদ ইনস্টিটিউশনে এই প্রকাশনা উৎসবে প্রধানমন্ত্রী জানান, বঙ্গবন্ধুর লেখা এই দিনলিপির খাতাটি পুলিশের বিশেষ শাখা এসবির সহায়তার ২০১৪ সালে খুঁজে পাওয়া যায়। এই খাতাটি পাকিস্তান সরকার বাজেয়াপ্ত করেছিল।

বক্তব্যে বাবার সঙ্গের নানা স্মৃতি তুলে ধরেন শেখ হাসিনা: “ছোটবেলায় বেশিরভাগ সময়ই আব্বার সঙ্গে দেখা জেলখানাতেই হত। আমরা আমাদের জীবনে একটানা দুই বছর বাবাকে কাছে পাইনি।

“আমরা জানতাম যে, আমার বাবা দেশের মানুষের জন্য কাজ করেন। তাই আমাদের কোনও আবদার, কোনও কিছুই বাবার কাছে ছিল না। বরং যতটুকু সময় উনি বাইরে থাকতেন এত স্নেহ আদর দিতেন যে না পাওয়ার বেদনা ভুলে যেতাম।”

স্মৃতিচারণ করতে গিয়ে বিভিন্ন সময় অশ্রুসিক্ত হয়ে পড়েন প্রধানমন্ত্রী।

বাবার লেখার পেছনে মায়ের ভূমিকা উল্লেখ করে শেখ হাসিনা বলেন, “মায়ের কথা বারবার মনে পড়ে। লেখার জন্য বারবার উৎসাহ দিতেন। যখনই বাবা গ্রেপ্তার হতেন, লেখার জন্য খাতা দিতেন এবং সেগুলো সযত্নে সংরক্ষণ করতেন।”

বাবার লেখাগুলো প্রকাশ করতে পারাকে স্বার্থকতা হিসেবে দেখছেন তিনি।

“এত ঝড়, ঝঞ্ঝা এত কিছুর পরেও লেখাগুলিকে আমরা খুঁজে পেয়েছি।”

বাংলাদেশ সৃষ্টির জন্য বঙ্গবন্ধুর সংগ্রাম ও ত্যাগের কথা উল্লেখ করে শেখ হাসিনা বলেন, এই বই পড়ার মধ্য দিয়ে বুঝতে পারবেন একটি মানুষ দেশকে ও দেশের মানুষকে ভালোবেসে কত ত্যাগ স্বীকার করতে পারেন।

“কোনো কিছু চাওয়া-পাওয়া নেই। শুধু এদেশের মানুষকে কিছু দিয়ে যেতে চেয়েছেন। রাষ্ট্র দিয়ে গেছেন, আত্মপরিচয়ের সুযোগ দিয়ে গেছেন, ঠিকানা দিয়ে গেছেন।

“তাকে যারা ইতিহাস থেকে মুছে ফেলতে চেয়েছিলেন তারা তা পারেন নাই।”  

শেখ হাসিনা বলেন, “আমার একটাই কাজ। তার স্বপ্নের সেই ‘সোনার বাংলা’ গড়ে তোলা।”

বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে আরও বই প্রকাশ করা হবে বলে জানান তিনি।

বাংলাদেশ স্বাধীন হওয়ার আগে পাকিস্তান সরকারের পুলিশের বিশেষ শাখা বিভিন্ন সময় বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে ৩০ থেকে ৪০ হাজার পৃষ্ঠার প্রতিবেদন দিয়েছিল। সেই প্রতিবেদন নিয়ে একটি বই প্রকাশিত হবে বলে জানান প্রধানমন্ত্রী।

তিনি বলেন, “তা থেকে একদিকে তার জীবনী পাওয়া যাবে, আরেক দিকে বাংলাদেশের অভ্যুত্থানের অনেক কথাও পাওয়া যাবে। কীভাবে তিনি কাজ করেছেন, কীভাবে রাজনৈতিক দল গঠন করেছেন, কীভাবে সারা বাংলাদেশ ঘুরে বেড়িয়েছেন সবকিছুই সেখানে আছে।”

“কীভাবে বঙ্গবন্ধু একটি দেশকে স্বাধীন করেছেন তাও ওই বই থেকে জানা যাবে।”

এছাড়া আগরতলা ষড়যন্ত্র মামলার তথ্য নিয়েও আরেকটি বই প্রকাশিত হবে বলে জানান শেখ হাসিনা।

১৯৬৬ সালে তৎকালীন পূর্ব বাংলার (বাংলাদেশ) স্বাধিকারের দাবি ছয় দফা দেওয়ার পর শেখ মুজিবুর রহমানকে গ্রেপ্তার করে উপনিবেশিক পাকিস্তান সরকার। ১৯৬৯ সাল পর্যন্ত কারাগারে বন্দি থাকার সময় তিনি যে দিনলিপি লিখেছেন তা নিয়েই সাজানো হয়েছে ‘কারাগারের রোজনামচা’।

৩৩২ পৃষ্ঠার এই বইয়ের দাম রাখা হয়েছে ৪০০ টাকা। ৩০ শতাংশ কমিশনে ২৮০ টাকায় বইটি বিক্রি করা হচ্ছে।

এর আগে ২০১২ সালে বঙ্গবন্ধুর স্মৃতিকথা নির্ভর ‘অসমাপ্ত আত্মজীবনী’ প্রকাশিত হয়।

এমিরেটাস অধ্যাপক রফিকুল ইসলামের সভাপতিত্বে প্রকাশনা উৎসবে বইটির ওপর আলোচনা করেন অধ্যাপক মুনতাসির মামুন ও অধ্যাপক সৈয়দ আনোয়ার হোসেন।

অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য দেন সংস্কৃতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান নুর ও বাংলা একাডেমির মহাপরিচালক শামসুজ্জামান খান।

]]>
1310814 http://d30fl32nd2baj9.cloudfront.net/media/2017/03/28/pm_jail-story.jpg/ALTERNATES/w300/PM_jail-Story.jpg 1310819 http://d30fl32nd2baj9.cloudfront.net/media/2017/03/28/pm_jail-story-03.jpg/ALTERNATES/w300/PM_jail-Story-03.jpg 1310818 http://d30fl32nd2baj9.cloudfront.net/media/2017/03/28/pm_jail-story-02.jpg/ALTERNATES/w300/PM_jail-Story-02.jpg 1310817 http://d30fl32nd2baj9.cloudfront.net/media/2017/03/28/pm_jail-story-01.jpg/ALTERNATES/w300/PM_jail-Story-01.jpg 1310820 http://d30fl32nd2baj9.cloudfront.net/media/2017/03/28/pm_jail-story-04.jpg/ALTERNATES/w300/PM_jail-Story-04.jpg
10 2 Home politics_bn রাজনীতি news-bn 198 1310812 জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম 2017-03-28 21:43:20.0 2017-03-28 21:43:20.0 ‘দুই একটি অভিযানের সাফল্যে আত্মপ্রসাদের সুযোগ নেই’ ‘দুই একটি অভিযানের সাফল্যে আত্মপ্রসাদের সুযোগ নেই’ সন্ত্রাস-জঙ্গিবাদ সমস্যাকে জাতীয়ভাবে মোকাবেলা করতে সবাইকে আবারও ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানিয়ে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া বলেছেন, কেবল দমন অভিযান চালিয়ে সমাজ থেকে জঙ্গিবাদের শেকড় পুরোপুরি উচ্ছেদ করা সম্ভব নয়। সন্ত্রাস-জঙ্গিবাদ সমস্যাকে জাতীয়ভাবে মোকাবেলা করতে সবাইকে আবারও ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানিয়ে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া বলেছেন, কেবল দমন অভিযান চালিয়ে সমাজ থেকে জঙ্গিবাদের শেকড় পুরোপুরি উচ্ছেদ করা সম্ভব নয়। false http://bangla.bdnews24.com/politics/article1310812.bdnews false http://d30fl32nd2baj9.cloudfront.net/media/2016/11/18/01_khaleda-zia_bnp_westin_ap_181116_0009.jpg1/ALTERNATES/w300/01_Khaleda+Zia_BNP_Westin_AP_181116_0009.jpg বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া (ফাইল ছবি)
দুই একটি দমন অভিযানের সাফল্যে আত্মপ্রসাদ লাভ করার কোনো সুযোগ নেই বলেও মন্তব্য করেছেন তিনি।

মঙ্গলবার রাতে এক বিবৃতিতে তিনি এসব কথা বলেন।

সিলেট, ঢাকা, চট্টগ্রাম, কুমিল্লাসহ দেশের বিভিন্ন এলাকায় ধর্মীয় জঙ্গিবাদের নামে পরিচালিত সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডের বিস্তারে উদ্বেগ প্রকাশ করে খালেদা জিয়া বলেন, “দোষারোপের রাজনীতি না করে সন্ত্রাস-জঙ্গিবাদের সমস্যাকে জাতীয়ভাবে মোকাবিলার জন্য আমি ক্ষমতাসীনদের প্রতি আবারও আহ্বান জানাচ্ছি। দেশের সকলকে আমি এই সমস্যা নিরসনে ঐক্যবদ্ধ হবার অনুরোধ করছি।”

একই সঙ্গে সিলেটের দক্ষিণ সুরমায় জঙ্গি আস্তানায় ‘আতিয়া মহলে’ জঙ্গি দমনে সফল অভিযান পরিচালনার জন্য সেনাবাহিনীর প্যারা কমান্ডোসহ দেশরক্ষা বাহিনীকে অভিনন্দন জানান সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়া।

গত বৃহস্পতিবার গভীর রাতে জঙ্গি আস্তানা সন্দেহে সিলেটের দক্ষিণ সুরমার শিববাড়ি পাঠানপাড়ার আতিয়া মহল ঘিরে ফেলে পুলিশের কাউন্টার টেররিজম ইউনিট। পরে তাদের সঙ্গে যোগ দেয় সোয়াট এবং সেনাবাহিনীর প্যারা কমান্ডো ব্যাটালিয়ন। শনিবার সকালে শুরু হয় চূড়ান্ত অভিযান।

শিববাড়ি এলাকা ঘিরে সেনা অভিযান শুরুর পর ব্যাপক গোলাগুলির মধ্যে শনিবারই ওই ভবন থেকে ৭৮ জনকে অক্ষত অবস্থায় উদ্ধার করা হয়।

ওই অভিযানের মধ্যেই শনিবার সন্ধ্যায় আতিয়া মহল থেকে এক কিলোমিটারের মধ্যে এক জায়গায় দুই দফা বিস্ফোরণে দুই পুলিশ সদস্যসহ ছয়জন নিহত হন।

সোমবার রাতে সংবাদ ব্রিফিংয়ে জঙ্গি আস্তানার নিয়ন্ত্রণ নেওয়ার এবং ভেতরে চারটি লাশ পাওয়ার কথা জানায় সেনাবাহিনী। মঙ্গলবার আতিয়া মহলের নিয়ন্ত্রণ পুলিশের হাতে দিয়ে অভিযানের সমাপ্তি ঘোষণা করা হয়।

বিবৃতিতে খালেদা জিয়া বলেন, “সিলেটের একটি আবাসিক ভবনে আগ্নেয়াস্ত্র ও বিস্ফোরকসহ গোপনে অবস্থানকৃত সন্ত্রাসীদের দমনের লক্ষ্যে সফল অভিযান পরিচালনার জন্য আমি আমাদের সেনাবাহিনীর প্যারা কমান্ডোবৃন্দসহ দেশরক্ষা বাহিনীর প্রতি অভিনন্দন জানাচ্ছি। অভিযানে বিভিন্ন বাহিনীর সদস্য এবং যেসব সাধারণ মানুষ হতাহত হয়েছেন, তাদের প্রতি জ্ঞাপন করছি শোক ও সহানুভুতি।”

গত বছর গুলশান-শোলাকিয়ায় হামলার পর জঙ্গিবাদবিরোধী জাতীয় ঐক্য গঠনে খালেদা জিয়া যে প্রস্তাব দিয়েছিলেন তা ক্ষমতাসীন আওয়ামী আওয়ামী লীগ নাকচ করার প্রসঙ্গও উঠে আসে খালেদার বিবৃতিতে।

চেয়ারপারসনের প্রেস সচিব মারুফ কামাল খান স্বাক্ষরিত বিবৃতিতে খালেদা জিয়া বলেন, “সন্ত্রাস-জঙ্গিবাদ একটি বৈশ্বিক সংকটে পরিণত হয়েছে। বাংলাদেশও এ থেকে বিচ্ছিন্ন নয়। এই সংকট মোকাবেলায় আমাদেরকে প্রয়োজনীয় আন্তর্জাতিক সহযোগিতা নিয়ে জাতীয় ঐক্যের ভিত্তিতে অগ্রসর হতে হবে। সেই আহ্বান আমি বরাবর জানিয়ে আসছি। দুঃখের বিষয় আমাদের আহ্বান এখন পর্যন্ত চরমভাবে উপেক্ষিত হয়ে আসছে।”

বিএনপি চেয়ারপারসন বলেন, “মুসলিম প্রধান এদেশটিতে গণতন্ত্রহীনতা, জবাবদিহিতাহীন শাসন, দুর্নীতি, সুবিচারের অভাব এবং যুব সমাজের বেকারত্বই জঙ্গিবাদ বিস্তারের প্রধান কারণ। এই কারণগুলো দূর করতে হবে। জনগণকে আস্থায় নিয়ে তাদের কাছ থেকে সক্রিয় সহযোগিতা নিতে হবে।

“বর্তমান স্পর্শকাতর একটি সময়ে জঙ্গিবাদের আকস্মিক বিস্তার ও দমন অভিযানে স্বচ্ছতার অভাবে জনমনে নানা প্রশ্ন ও সংশয়ের সৃষ্টি হয়েছে। এই সব সন্দেহ দূর করতে হবে। আমি এই বিষয়গুলো অবিলম্বে গুরুত্বের সঙ্গে বিবেচনায় নিয়ে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণের আহ্বান জানাচ্ছি।”

নিজের শাসনামলে জঙ্গিবাদ দমনে কঠোর অবস্থানের কথা উল্লেখ করে খালেদা জিয়া বলেন, “সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে আমাদের অবস্থান অত্যন্ত কঠোর ও খুবই স্পষ্ট। ১৯৯৬ সালে আওয়ামী লীগ ক্ষমতাসীন হবার পর দেশব্যাপী এই সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদের বিস্তার ঘটে। ২০০১ সালে নির্বাচিত হয়ে আমরা দায়িত্ব নেবার পর আমাদের সরকারও জঙ্গিবাদের এই সংকটের ‍মুখোমুখি হয়। আমরা কঠোর হাতে তা দমন করি।

“জঙ্গি সংগঠনগুলোর নেটওয়ার্ক পুরোপুরি ভেঙে দেয়া হয় এবং শীর্ষ জঙ্গি নেতাদের জীবিত অবস্থায় গ্রেপ্তার করে তাদের বিচার সম্পন্ন করা হয়। পরে তাদের শাস্তি কার্য্কর হয়।”

জঙ্গিবাদ ও সন্ত্রাসে বিএনপি-জামায়াতের জড়িত থাকার বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী থেকে শুরু করে ক্ষমতাসীন নেতাদের দাবির বিষয়টিও বিবৃতিতে তুলে আনেন খালেদা জিয়া।

তিনি বলেন, “আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় এলেই কেন জঙ্গিবাদ এভাবে মাথাচাড়া দিয়ে উঠে, তা নিয়ে প্রশ্ন থাকলেও আমরা এই প্রশ্ন কখনো তুলিনি এবং এ নিয়ে দোষারোপের রাজনীতিতেও লিপ্ত হইনি। বিশেষ কোনো সরকার বা দলের নয়, এটি একটি জাতীয় সমস্যা। তাই দোষারোপের রাজনীতি না করে সন্ত্রাস-জঙ্গিবাদের সমস্যাকে জাতীয়ভাবে মোকাবিলার জন্য আমি ক্ষমতাসীনদের প্রতি আবারো আহবান জানাচ্ছি।”

]]>
1244809 http://d30fl32nd2baj9.cloudfront.net/media/2016/11/18/01_khaleda-zia_bnp_westin_ap_181116_0009.jpg1/ALTERNATES/w300/01_Khaleda+Zia_BNP_Westin_AP_181116_0009.jpg বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া (ফাইল ছবি)
11 2 Home samagrabangladesh সমগ্র বাংলাদেশ news-district 9945 1310555 মঞ্জুর আহমেদ, সিলেট প্রতিনিধি বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম মঞ্জুর আহমেদ, সিলেট প্রতিনিধি বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম 2017-03-28 17:38:05.0 2017-03-28 19:35:43.0 নারী জঙ্গির মৃত্যু ‘আগুনে পুড়ে’, পুরুষটি ‘বিস্ফোরণে’ সুরতহাল: নারী জঙ্গির মৃত্যু আগুনে পুড়ে, পুরুষটি বিস্ফোরণে সিলেটের জঙ্গিবাড়ি আতিয়া মহলে নিহত চার জঙ্গির মধ্যে একজন পুরুষের মৃত্যু হয়েছে আত্মঘাতী বিস্ফোরণে, আর এক নারী নিজের গায়ে আগুন দিয়ে আত্মহত্যা করেন বলে পুলিশের ধারণা।    সিলেটের জঙ্গিবাড়ি আতিয়া মহলে নিহত চার জঙ্গির মধ্যে একজন পুরুষের মৃত্যু হয়েছে আত্মঘাতী বিস্ফোরণে, আর এক নারী নিজের গায়ে আগুন দিয়ে আত্মহত্যা করেন বলে পুলিশের ধারণা।    false http://bangla.bdnews24.com/samagrabangladesh/article1310555.bdnews false http://d30fl32nd2baj9.cloudfront.net/media/2017/03/28/shibbari-deadbody.jpg/ALTERNATES/w300/Shibbari+Deadbody.jpg
সেনাবাহিনী সোমবার ওই দুইজনের লাশ পুলিশের কাছে হস্তান্তরের পর মঙ্গলবার ওসমানী মেডিকেল কলেজ কলেজ হাসপাতালে ময়নাতদন্ত হয়।

বাকি দুটি লাশ এখনও ওই জঙ্গি আস্তানার ভেতরে রয়েছে। সেগুলো এখনও সরানো হয়নি বলে মোগলাবাজার থানার ওসি খায়রুল ফজল বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে জানিয়েছেন।

দক্ষিণ সুরমার শিববাড়ি এলাকার ওই বাড়িতে জঙ্গি আস্তানার সন্ধান পাওয়ার পর বৃহস্পতিবার গভীর রাতে ভবনটি ঘিরে ফেলে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। শনিবার সকালে সেখানে চূড়ান্ত অভিযান শুরু করে সেনাবাহিনীর কমান্ডো দল।

সোমবার রাতে ওই ভবন নিয়ন্ত্রণে নেওয়ার কথা জানিয়ে সেনাবাহিনীর পক্ষ থেকে বলা হয়, ভেতরে চার জঙ্গির লাশ পেয়েছেন তারা।

সেনাবাহিনীর ওই প্রেস ব্রিফিংয়ের আগে সন্ধ্যা ৬টার পর আতিয়া মহলের সামনে লাশ দুটির সুরতহাল করেন দুই পুলিশ সদস্য। পরে সেগুলো মর্গে পাঠানো হয় ময়নাতদন্তের জন্য।

পুরুষের লাশটির সুরতহাল করেন মোগলাবাজার থানার এসআই মো. সোহেল রানা। আর একই থানার এসআই সুজন দত্ত নারীর লাশের সুরতহাল করেন। 

সুরতহাল প্রতিবেদনের তথ্য অনুযায়ী, নিহত ওই পুরুষের দৈর্ঘ্য আনুমানিক ৫ ফুট ৫ ইঞ্চি। গোলাকার মুখমণ্ডল ছিল আগুনে পোড়া। মাথার সামান্য চুল ও মুখে কিছু দাড়ি ছিল।

ওই ব্যক্তির পরনে ছিল কালো জামা, দুই পায়ে কালো জুতা। আর ডান পায়ে কালো প্যান্টের অংশ লেগে ছিল।

লাশের বুক থেকে তলপেট পর্যন্ত পুরোটাই ছিল ছিন্ন বিচ্ছিন্ন। বাঁ পায়ের মাংস গোড়ালির টাকনু পর্যন্ত কাটা।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, “অজ্ঞাতনামা লাশটি একজন জঙ্গি সন্ত্রাসীর লাশ বলিয়া প্রতিয়মান হয়। উক্ত জঙ্গি সন্ত্রাসী আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর গ্রেপ্তার এড়ানোর জন্য নিজে নিজে আত্মঘাতী বোমা বিস্ফোরণ ঘটাইয়া মারা গিয়াছে বলিয়া অনুমান করা যাইতেছে।”

নিহত ওই নারীর দৈর্ঘ্য আনুমানিক চার ফুট বলে উল্লেখ করা হয়েছে সুরতহাল প্রতিবেদনে।

সেখানে বলা হয়েছে, তার মুখমণ্ডল ছিল পোড়া, মাথায় সামান্য চুল দেখা গেছে।

দুই হাত ও দুই পায়ের গিড়া পর্যন্ত সম্পূর্ণ দেহ পোড়া এবং বাইরে থেকে কঙ্কাল দৃশ্যমাণ। একটি পায়ে সামান্য মাংস আছে এবং পায়ের তালুর নিচে আনুমানিক দুই ইঞ্চি কাটা।

এসআই সুজন দত্ত লিখেছেন, বুক ও পা দেখে প্রতীয়মান হয় যে লাশটি একজন নারীর।

“লাশটি একজন জঙ্গি সন্ত্রাসীর স্ত্রীর এবং গোপনীয়ভাবে জানা যায়, ওই নারী নিজেও একজন জঙ্গি সন্ত্রাসী দলের সদস্য। আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর গ্রেপ্তার এড়ানোর জন্য নিজের গায়ে নিজে আগুন লাগাইয়া মৃত্যুবরণ করিয়াছে বলিয়া অনুমান হয়,” বলা হয়েছে প্রতিবেদনে।

আতিয়া মহলের মালিক উস্তার আলীর দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, মর্জিনা বেগম ও কাউছার আলী নামে দুইজন স্বামী-স্ত্রী পরিচয়ে মাস তিনেক আগে নিচতলার একটি ফ্ল্যাট ভাড়া নেন।

অভিযানের প্রথম দিন গত শুক্রবার পুলিশের আত্মসমর্পণের আহ্বানের জবাবে ওই বাসা থেকে এক নারী ও এক পুরুষকণ্ঠের কথাও শোনা যায়। 

ওই দুটি লাশের মধ্যে একজন আতিয়া মহলে বাসা ভাড়া নেওয়া সেই মর্জিনা বলে ধারণা করছেন পুলিশ কর্মকর্তারা। আর কাউন্টার টেররিজম ইউনিটের একজন কর্মকর্তা বলেছেন, নব্য জেএমবির অন্যতম শীর্ষ নেতা মাইনুল ইসলাম ওরফে মুসার মৃতদেহও চার জঙ্গির মধ্যে রয়েছে বলে তারা ধারণা করছেন।

তবে দুটি লাশের ময়নাতদন্তের পর কোতোয়ালি থানার ওসি সোহেল আহমদ বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, “লাশ দুটি চেনার উপায় নাই। অজ্ঞাতপরিচয় হিসেবেই তাদের ময়নাতদন্ত হয়েছে। এখন লাশ দুটি রাখা হবে হিমাগারে। পরিচয় নিশ্চিতের জন্য ডিএনএ নমুনা ও আঙুলের ছাপ রাখা হয়েছে।”

]]>
1310556 http://d30fl32nd2baj9.cloudfront.net/media/2017/03/28/shibbari-deadbody.jpg/ALTERNATES/w300/Shibbari+Deadbody.jpg 1310444 http://d30fl32nd2baj9.cloudfront.net/media/2017/03/28/sylhet-atia-mohol-deadbody-.jpg/ALTERNATES/w300/Sylhet-Atia-Mohol-Deadbody-.jpg 1310151 http://d30fl32nd2baj9.cloudfront.net/media/2017/03/27/atia-mohol-sylhet.jpg/ALTERNATES/w300/Atia+Mohol-Sylhet.jpg 1310553 http://d30fl32nd2baj9.cloudfront.net/media/2017/03/28/04_operation-twilight_sylhet_260317_00003.jpg/ALTERNATES/w300/04_Operation+Twilight_Sylhet_260317_00003.jpg 2 news-bn বাংলাদেশ 199 1310146 2017-03-27 19:46:13.0 সিলেটের জঙ্গি আস্তানা সেনা নিয়ন্ত্রণে, ভেতরে ৪ লাশ 2 news-district সমগ্র বাংলাদেশ 9945 1310446 2017-03-28 15:35:55.0 আতিয়া মহলের দুই জঙ্গির লাশের ময়নাতদন্ত
12 2 Home cricket_bn ক্রিকেট news-bn 212 1310759 ডাম্বুলা থেকে অনীক মিশকাত, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম ডাম্বুলা থেকে অনীক মিশকাত, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম 2017-03-28 20:17:19.0 2017-03-28 21:41:10.0 ডাম্বুলায় শেষ হাসি বৃষ্টির ডাম্বুলায় শেষ হাসি বৃষ্টির বৃষ্টিতে পরিত্যক্ত হয়েছে শ্রীলঙ্কা-বাংলাদেশ সিরিজের দ্বিতীয় ওয়ানডে। স্থানীয় সময় রাত সাড়ে আটটার দিকে থেমেছিল বৃষ্টি। দর্শকদের তুমুল করতালির মধ্যে মাঠে এসেছিলেন আম্পায়াররা। মাঠকর্মীরা প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন কাভার সরানোর। পাঁচ মিনিট পর আবার শুরু হল বৃষ্টি, এবার হাল ছেড়ে দিতে হল। false http://bangla.bdnews24.com/cricket/article1310759.bdnews false http://d30fl32nd2baj9.cloudfront.net/media/2017/03/28/mashrafe-team.jpg/ALTERNATES/w300/Mashrafe-team.jpg ছবি: শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট
রাত পৌনে নয়টার সময় এল আনুষ্ঠানিক ঘোষণা, পরিত্যক্ত শ্রীলঙ্কা-বাংলাদেশের দ্বিতীয় ওয়ানডে। প্রথম ম্যাচ ৯০ রানে জিতে সিরিজে এগিয়ে বাংলাদেশ। সমতায় শেষ করতে তৃতীয় ও শেষ ওয়ানডে জিততেই হবে শ্রীলঙ্কার।

২০১৩ সালেও শ্রীলঙ্কা সফরে বৃষ্টিতে ভেসে গিয়েছিল দ্বিতীয় ওয়ানডে। সেবার শেষ ম্যাচ জিতে প্রথমবারের মতো শ্রীলঙ্কার সঙ্গে সিরিজ ড্র করেছিল বাংলাদেশ। এবার উল্টো পরিস্থিতিতে সাবেক বিশ্ব চ্যাম্পিয়নরা।   

জয়ের জন্য কুসল মেন্ডিসের প্রথম শতকে তিনশ ছাড়ানো লক্ষ্য দিয়েছিল শ্রীলঙ্কা। কিন্তু ইনিংস বিরতিতে যে বৃষ্টি নামলো তার জন্য আর তাড়ায় মাঠে নামার সুযোগই মেলেনি মাশরাফি বিন মুর্তজার দলের।

ইনিংসের শেষ ওভারে হ্যাটট্রিক করেছেন তাসকিন আহমেদ। তার দারুণ বোলিংয়ে এক বল আগেই ৩১১ রানে অলআউট হয়েছে শ্রীলঙ্কা। ডাম্বুলাতে স্বাগতিকদের এটি দ্বিতীয় তিনশ ছাড়ানো স্কোর। প্রথমটিও ছিল বাংলাদেশের বিপক্ষেই।

রনগিরি আন্তর্জাতিক স্টেডিয়ামে মঙ্গলবার টস জিতে ব্যাটিং নেন স্বাগতিক অধিনায়ক উপুল থারাঙ্গা। প্রথম ম্যাচে তিনি ব্যাটিংয়ে পাঠিয়েছিলেন অতিথিদের।

ব্যাটিং সহায়ক উইকেটে শুরুতে লঙ্কানদের বেধে রাখেন মাশরাফি ও মেহেদী হাসান মিরাজ। তৃতীয় ওভারেই আঘাত হানেন অধিনায়ক। তার কাটার বুঝতে পারেননি দানুশকা গুনাথিলাকা। পুল করতে গিয়ে ঠিক মতো পারেননি, ছুটে গিয়ে স্কয়ার লেগে ঝাঁপিয়ে দারুণ ক্যাচ গ্লাভসে জমান মুশফিকুর রহিম।

থারাঙ্গা ছিলেন শুরুতে সতর্ক, মেন্ডিস নড়বড়ে। দুই জনকে দ্রুত ফেরাতে পারেনি বাংলাদেশ। পরে দিতে হয় তার মাশুল। ৬১ বলে আসে দুই জনের দ্বিতীয় উইকেটে অর্ধশতক, ১২৭ বলে শতক। শ্রীলঙ্কা পায় বড় সংগ্রহের ভিত।

নিজের দুইশতম ম্যাচে ৬৮ বলে অর্ধশতকে পৌঁছান থারাঙ্গা। তার ব্যাটে ছিল আরও বড় ইনিংসের আভাস। মুস্তাফিজুর রহমানের বিমারে রান নিতে গিয়ে মাহমুদউল্লাহর সরাসরি থ্রোয়ে রান আউটে থামতে হয় অনেক আগেই।

৭৬ বলে ৯টি চারে থারাঙ্গা ফিরেন ৬৫ রানে, ভাঙে ২২ ওভার স্থায়ী ১১১ রানের জুটি।

অধিনায়কের বিদায়ের পরই অন্য চেহারায় দেখা যায় মেন্ডিসকে। সে সময় ৬১ বলে ৪২ রানে ছিলেন তিনি। পরের ৪৬ বলে আসে ৬০ রান। মুস্তাফিজের ফ্রি হিটে ছক্কা হাঁকিয়ে শুরু পাল্টা আক্রমণের। তাতে বাধ দিতে পারেননি অতিথিদের কোনো বোলার।

সে সময় খুনে মেজাজে ব্যাট করা মেন্ডিসকে স্ট্রাইক দেওয়ার দিকেই ছিল নতুন ব্যাটসম্যান দিনেশ চান্দিমালের নজর। দুই জনের জুটির অর্ধশতক আসে ৩৪ বলে। তাতে মেন্ডিসের অবদান ২৪ বলে ৪২ রান!

২ ওভারের প্রথম স্পেলে ১৭ রান দেওয়া মুস্তাফিজ ৩ ওভারে দ্বিতীয় স্পেলে দেন ২৬ রান। তৃতীয় স্পেলে মিলে সাফল্য। ২ ওভারের স্পেলে ১১ রান দিয়ে ফিরিয়ে দেন চান্দিমালকে। ভাঙেন ১২.১ ওভার স্থায়ী ৮৩ রানের জুটি।

পরের ওভারে মেন্ডিসকে বিদায় করেন তাসকিন। জোরালো শট তরুণ এই পেসারের বাঁ হাতের ওপরের দিকে লেগে আরও ওপরে উঠে যায়। প্রথমে বুঝতে পারেননি বল কোথায় যাচ্ছে, পরে দিশা পেলেন, নিজেই হাতে জমালেন।

১০৭ বলে খেলা মেন্ডিসের ১০২ রানের ইনিংসটি গড়া ৯টি চার ও একটি ছক্কায়।   

দ্রুত চান্দিমাল-মেন্ডিসকে ফেরানো বাংলাদেশের সামনে সুযোগ ছিল স্বাগতিকদের চেপে ধরার। ফিল্ডিং ব্যর্থতায় হয়নি। ১৩ রানে আসেলা গুনারত্নের স্টাম্পিং মিস করেন মুশফিক। ২৪ রানে মিলিন্দা সিরিবর্দনেকে জীবন দেন মিরাজ।

গুনারত্নে-সিরিবর্দনের ৮ ওভারের জুটিতে উঠে ৫৫ রান। তাতে তিনশ রানের পথে এগিয়ে যায় শ্রীলঙ্কা। বোলিংয়ে ফিরে সিরিবর্দনেকে ফিরিয়ে নিজের ভুল সংশোধন করেন মিরাজ। দুই পেরেরা, থিসারা ও নুয়ান ফিরেন ঝড় তোলার আগেই। দুই জনই রান আউট হন উইকেটের পেছন থেকে মুশফিকের দুর্দান্ত থ্রোয়ে।

৫০তম ওভারে পরপর তিন বলে গুনারত্নে, সুরঙ্গা লাকমল ও নুয়ান প্রদিপকে ফিরিয়ে দিয়ে নিজের হ্যাটট্রিক পূরণের সঙ্গে শ্রীলঙ্কাকে গুটিয়ে দেন তাসকিন। শাহাদাত হোসেন, আব্দুর রাজ্জাক, রুবেল হোসেন ও তাইজুল ইসলামের পর বাংলাদেশের পঞ্চম বোলার হিসেবে হ্যাটট্রিকের স্বাদ পেলেন তিনি।

৪৭ রানে ৪ উইকেট নিয়ে তাসকিনই বাংলাদেশের সেরা বোলার। মিরাজ, মাশরাফি ও মুস্তাফিজ নেন একটি করে উইকেট। বল হাতে বাজে দিন কাটানো বাঁহাতি পেসার ৮ ওভারে খরচ করেন ৬০ রান। এর মধ্যে এক ওভারে তার এক ওভার থেকে আসে ২০ রান। সাকিব আল হাসান ৫৯ রান দিয়ে ছিলেন উইকেটশূন্য।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

শ্রীলঙ্কা: ৪৯.৫ ওভারে ৩১১ (গুনাতিলাকা ৯, থারাঙ্গা ৬৫, মেন্ডিস ১০২, চান্দিমাল ২৪, গুনারত্নে ৩৯, সিরিবর্ধনে ৩০, থিসারা ৯, দিলরুয়ান ৯, কুলাসেকারা ২*, লাকমল ০, প্রদিপ ০; মাশরাফি ১/৫৫, মিরাজ ১/৫০, মুস্তাফিজ ১/৬০, তাসকিন ৪/৪৭, সাকিব ০/৫৯, মোসাদ্দেক ০/২৬)

ফল: ম্যাচ পরিত্যক্ত।

]]>
1310758 http://d30fl32nd2baj9.cloudfront.net/media/2017/03/28/mashrafe-team.jpg/ALTERNATES/w300/Mashrafe-team.jpg ছবি: শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট
13 2 Home economy_bn অর্থনীতি news-bn 202 1310720 নিজস্ব প্রতিবেদক বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম নিজস্ব প্রতিবেদক বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম 2017-03-28 19:47:19.0 2017-03-28 20:18:34.0 আগুন: কেন্দ্রীয় ব্যাংকে চলছে কর্মকর্তাদের জিজ্ঞাসাবাদ আগুন: কেন্দ্রীয় ব্যাংক কর্মকর্তাদের জিজ্ঞাসাবাদ চলছে বাংলাদেশ ব্যাংক ভবনে অগ্নিকাণ্ডের কারণ এবং এই ঘটনায় গাফিলতি ছিল কি না তা খতিয়ে দেখতে কেন্দ্রীয় ব্যাংক কর্মকর্তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করছে ফায়ার সার্ভিসের তদন্ত কমিটি।    বাংলাদেশ ব্যাংক ভবনে অগ্নিকাণ্ডের কারণ এবং এই ঘটনায় গাফিলতি ছিল কি না তা খতিয়ে দেখতে কেন্দ্রীয় ব্যাংক কর্মকর্তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করছে ফায়ার সার্ভিসের তদন্ত কমিটি।    false http://bangla.bdnews24.com/economy/article1310720.bdnews false http://d30fl32nd2baj9.cloudfront.net/media/2017/03/23/bangladesh-bank_fire-02.jpg/ALTERNATES/w300/Bangladesh-Bank_Fire-02.jpg
ফায়ার ব্রিগেডের ঢাকা বিভাগের উপ-পরিচালক সমরেন্দ্রনাথ বিশ্বাসের নেতৃত্বাধীন কমিটি মঙ্গলবার ঘটনাস্থল বাংলাদেশ ব্যাংকের ১৪তলা পরিদর্শন করে। পরে ব্যাংক কর্মীদের জিজ্ঞাসাবাদ করেন তারা।

বিকালে সমরেন্দ্রনাথ সাংবাদিকদের বলেন, “আমরা এসেছি সংশিষ্ট কর্মকর্তা-কর্মচারীদের জবানবন্দি নিতে। আজ সন্ধ্যা ৭টা পর্যন্ত যতজনকে জিজ্ঞাসাবাদ করা যায়, ততোজনকে জিজ্ঞাসাবাদ করব। আর বাকিদের আগামীকাল জিজ্ঞাসাবাদ করব। বিষয়টি সঠিকভাবে জানার জন্য এই জিজ্ঞাসাবাদ।”

এরইমধ্যে তদন্তের অনেক কাজ এগিয়েছে জানিয়ে তিনি বলেন, “আশা করছি নির্ধারিত পাঁচ কার্যদিবসের মধ্যে প্রতিবেদন জমা দিতে পারব।”

বাংলাদেশ ব্যাংক ভবনের ১৪ তলায় বৈদেশিক মুদ্রা নীতি বিভাগের একটি কক্ষে গত ২২ মার্চ রাত সাড়ে ৯টার দিকে আগুন লাগে। ঘণ্টাখানেকের চেষ্টার পর ফায়ার সার্ভিস তা পুরোপুরি নিয়ন্ত্রণে আনে।

ঘটনা তদন্তে ফায়ার সার্ভিসের পাশাপাশি বাংলাদেশ ব্যাংকও একটি কমিটি করে। তাদের প্রতিবেদন এরইমধ্যে জমা পড়েছে বলে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের মুখপাত্র শুভঙ্কর সাহা জানিয়েছেন। তবে ওই প্রতিবেদনে কী আছে তা জানাননি তিনি।

ফায়ার সার্ভিসের কমিটিকে পাঁচ কার্যদিবসের মধ্যে প্রতিবেদন জমা দিতে বলা হয়েছে। মঙ্গলবার তার দ্বিতীয় দিন ছিল বলে জানান সমরেন্দ্রনাথ বিশ্বাস।

তিনি বলেন, “কেন্দ্রীয় ব্যাংকের সিসিটিভি ফুটেজ দেখানোর জন্য লিখিতভাবে জানিয়েছি। এখনো পাইনি।”

এছাড়া আরও যেসব তথ্য চাওয়া হয়েছিল, সেগুলোর কিছু হাতে পেয়েছেন বলে জানান সমরেন্দ্রনাথ।

তিনি সাংবাদিকদের বলেন, “আমাদের প্রধান কাজ হচ্ছে আগুনটা কীভাবে লাগল তা খুঁজে বের করা। এদের (বাংলাদেশ ব্যাংক) কোনো গাফলাতি ছিল কি না তা তদন্ত করছি। আমরা প্রথম থেকে বলে আসছি যে, বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিট থেকে আগুন লাগতে পারে। সেটা বৈদ্যুতিক কেটলি থেকে হতে পারে।”

তাদের প্রতিবেদনে বিস্তারিত তুলে ধরা হবে জানিয়ে ফায়ার সার্ভিসের এই কর্মকর্তা বলেন, “কোনো নিয়ম অমান্য করা হয়েছে কি না সেটাসহ বিস্তারিত উল্লেখ করা হবে। যদি কারও কোনো দুর্বলতা বা অনিয়ম থাকে সেটাও তুলে ধরা হবে।

“তবে এটাকে নাশকতা হিসেবে দেখা হচ্ছে না। কারণ নাশকতার বেশ কিছু লক্ষণ থাকে, তা এখানে পাওয়া যায়নি।”

]]>
1308159 http://d30fl32nd2baj9.cloudfront.net/media/2017/03/23/bangladesh-bank_fire-02.jpg/ALTERNATES/w300/Bangladesh-Bank_Fire-02.jpg 2 news-bn অর্থনীতি 202 1310296 2017-03-28 00:16:28.0 আগুনে ক্ষয়ক্ষতি নিরূপণে তদন্ত প্রতিবেদনের অপেক্ষায় কেন্দ্রীয় ব্যাংক
14 2 Home sport_bn খেলা news-bn 210 1310780 স্পোর্টস ডেস্ক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম স্পোর্টস ডেস্ক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম 2017-03-28 20:52:39.0 2017-03-28 23:17:13.0 আর্জেন্টিনার হয়ে ৪ ম্যাচে নিষিদ্ধ মেসি আর্জেন্টিনার হয়ে ৪ ম্যাচে নিষিদ্ধ মেসি সহকারী রেফারির সঙ্গে অসৌজন্যমূলক আচরণের জন্য আন্তর্জাতিক ফুটবলে চার ম্যাচ নিষিদ্ধ হয়েছেন আর্জেন্টিনা অধিনায়ক। সহকারী রেফারির সঙ্গে অসৌজন্যমূলক আচরণের দায়ে আন্তর্জাতিক ফুটবলে চার ম্যাচ নিষিদ্ধ হয়েছেন লিওনেল মেসি। false http://bangla.bdnews24.com/sport/article1310780.bdnews false http://d30fl32nd2baj9.cloudfront.net/media/2017/03/28/messi-1.jpg/ALTERNATES/w300/Messi-1.jpg
বিশ্বকাপ বাছাইপর্বে চিলির বিপক্ষে ১-০ গোলে জেতা ম্যাচে মেসির আচরণের জন্য এই শাস্তি দিয়েছে বিশ্ব ফুটবলের নিয়ন্ত্রক সংস্থা ফিফা।
 
পাঁচবারের বর্ষসেরা ফুটবলারকে ১০ হাজার সুইস ফ্রাঁ জরিমানাও করা হয়েছে।
 
চিলির বিপক্ষে পেনাল্টি থেকে মেসির গোলেই জেতে আর্জেন্টিনা। ম্যাচের শেষ দিকে মেসির বিরুদ্ধে ফাউলের নির্দেশ দেয় রেফারি। এরপর লাইন্সম্যানকে লক্ষ্য করে বার্সেলোনার তারকা এই ফরোয়ার্ডকে হাত নেড়ে ক্ষোভ প্রকাশ ও চিৎকার করতে দেখা যায়। ম্যাচ শেষে এই অফিসিয়ালের সঙ্গে হাত মেলাতেও অস্বীকৃতি জানান আর্জেন্টিনা অধিনায়ক।
 
ম্যাচের প্রতিবেদনে অবশ্য ঘটনাগুলোর কথা উল্লেখ করেননি রেফারি। তবে ভিডিও ফুটেজ দেখে ২৯ বছর বয়সী এই খেলোয়াড় কোনো আপত্তিজনক কথা বলেছে কি-না এ ব্যাপারে ম্যাচ অফিশিয়াল ও আর্জেন্টিনা ফুটবল সংস্থার কাছে জানতে চায় বিশ্ব ফুটবলের নিয়ন্ত্রক সংস্থাটি।
 
মঙ্গলবার ফিফা জানায়, ওই ঘটনার সময় মেসি সহকারী রেফারির উদ্দেশে অপমানজনক কথা বলে।
 
নিষেধাজ্ঞার কারণে লা পাসে মঙ্গলবার বাংলাদেশ সময় রাত দুইটায় বলিভিয়ার বিপক্ষে আর্জেন্টিনার ম্যাচে খেলতে পারবেন না মেসি। তার বাকি তিন ম্যাচের নিষেধাজ্ঞা কার্যকর হবে বিশ্বকাপ বাছাইপর্বের পরের ম্যাচগুলোয়।

]]>
1310779 http://d30fl32nd2baj9.cloudfront.net/media/2017/03/28/messi-1.jpg/ALTERNATES/w300/Messi-1.jpg 2 news-bn খেলা 210 1310843 2017-03-28 22:36:29.0 মেসির শাস্তির বিরুদ্ধে আপিল করবে আর্জেন্টিনা
15 2 Home bangladesh_bn বাংলাদেশ news-bn 199 1310860 নিজস্ব প্রতিবেদক বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম নিজস্ব প্রতিবেদক বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম 2017-03-28 23:17:54.0 2017-03-28 23:17:54.0 ২০১১ এ নিরপেক্ষ নির্বাচনে বাধ্য হয়েছিল রাষ্ট্র: আইভী ২০১১ এ নিরপেক্ষ নির্বাচনে বাধ্য হয়েছিল রাষ্ট্র: আইভী জনগণের চাওয়ার কারণে ২০১১ সালে নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন নির্বাচনে রাষ্ট্র নিরপেক্ষ নির্বাচন দিতে ‘বাধ্য হয়েছিল’ বলে মন্তব্য করেছেন মেয়র সেলিনা হায়াৎ আইভী। জনগণের চাওয়ার কারণে ২০১১ সালে নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন নির্বাচনে রাষ্ট্র নিরপেক্ষ নির্বাচন দিতে ‘বাধ্য হয়েছিল’ বলে মন্তব্য করেছেন মেয়র সেলিনা হায়াৎ আইভী। false http://bangla.bdnews24.com/bangladesh/article1310860.bdnews false http://d30fl32nd2baj9.cloudfront.net/media/2017/03/28/13_selina-hayat-ivy_tas_280317_0002.jpg/ALTERNATES/w300/13_Selina+Hayat+Ivy_TAS_280317_0002.jpg
আন্তর্জাতিক নারী দিবস উপলক্ষে মঙ্গলবার রাজধানীতে পল্লী কর্ম-সহায়ক ফাউন্ডেশনের (পিকেএসএফ) ‘টেকসই উন্নয়নে নারীর ক্ষমতায়ন, সমতা ও বৈষম্যহীনতা' বিষয়ক এক আলোচনায় এই মন্তব্য করেন তিনি।

ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের মনোনয়নে দ্বিতীয় মেয়াদে নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের মেয়র হওয়া আইভী ২০১১ সালে দলীয় নেতা এ কে এম শামীম ওসমানকে হারিয়ে প্রথম নগর ভবনের কর্তৃত্ব নিয়েছিলেন।

আইভী বলেন, “কোনো শক্তি আমাকে রুখতে পারেনি। আমার একটাই লক্ষ্য ছিল, আমাকে প্রতিবাদ করতে হবে। আমি সেখানে যেতে চেয়েছি এবং গিয়েছি।

“একটা পর্যায়ে রাষ্ট্র এসে বাধ্য হয়েছে নিরপেক্ষ নির্বাচন দিতে, জনগণের চাহিদা মোতাবেক এবং তাই হয়েছে। নারায়ণগঞ্জের মানুষ ২০১১ সালে সত্যের পক্ষে রায় দিয়েছে। আর ২০১৬ সালের কথা তো সবাই জানেন।”

বিভিন্ন সময় ‘সত্য কথা’ বলার কারণে দলের মধ্যেও তাকে ‘সরকার বিরোধী’ তকমা দেওয়া হয় বলে অভিযোগ করেন আইভী।

“বিভিন্ন কারণে আমি আবার বেশি সত্য কথা বলে ফেলি, তাতে অনেকে আবার বলে আমি নাকি সরকার বিরোধী। এজন্য কথা অনেকটা কমিয়ে দিয়েছি যে তা নয়, কিন্তু বলার সময় খুব সংযতভাবে বলতে হয়। সত্য কথা বলতে পারি না অনেক সময়। আবার অনেক সত্য আসলে নির্মম, বলাও যায় না, ওভারকাম করে নিতে হয়। আমি এত পাকা রাজনীতিবিদ না বলে, সরাসরি কথা বলতাম বলে আমাকে অনেক বিপদের সম্মুখীন হতে হয়েছে।”

ক্ষমতায় আসার পথে পুরুষদের তৈরি করা বিভিন্ন বাধা পার হওয়ার কথাও জানান বাংলাদেশে সিটি করপোরেশনে প্রথম নারী মেয়র আইভী।

“অনেক চড়াই-উৎরাই পার হয়ে আমাকে আসতে হয়েছে, একজন নারী হওয়ায় শুধু। আমাকে প্রতিদিন বিভিন্ন সমস্যা সমাধান করে আসতে হয়। প্রথমে তো মানতেই চায় না, ওখানে যারা কাউন্সিলর ছিলেন তারা। ওখানের এনভায়রনমেন্টটা এমন ছিল যে লেখাপড়া করে ডাক্তার হইছে- হাসপাতালে যা, এখানে কেন? এই এখানে কেন-এর প্রমাণ দিতে আমাকে অনেক কাঠখড় পোড়াতে হয়েছে।”

সব বাধা পেরিয়ে সামনে এগিয়ে যেতে গিয়ে সম্মানহানির ঝুঁকি নেওয়ার কথাও বলেন আইভী।

“আত্মসম্মান গেছে, বদনাম হইছে।ফেস্টুন লাগিয়ে শহর ভরে ফেলছে। একজন নারীকে কীভাবে নির্যাতন করা যায়, যাতে নারী পিছিয়ে সব ছেড়ে যায়। এখনও ছেড়ে যাইনি, কিন্তু বলিনি যে তাও নয়। ইমোশনকেও কন্ট্রোল করতে হয়, কিন্তু মানুষ হিসেবে সব কন্ট্রোল করা যায় না।”

‘বাল্যবিবাহ নিরোধ আইন’ এ কম বয়সে বিয়ের বিধান রাখার সমালোচনা করেন আওয়ামী লীগের নেতা আইভী।

“প্রধানমন্ত্রীর কাছে কৃতজ্ঞতা, তিনি নারীদের জন্য অনেক করছেন। কিন্তু বাল্যবিবাহ আইনে আমি জানি না কেন এই ফাঁকটা রাখা হয়েছে। আমি সম্পূর্ণ দ্বিমত পোষণ করছি এর সাথে, এটি চেঞ্জ করা দরকার। তবে সেইদিন আর বেশি দূরে নয়, যেদিন আমাদের নারীরা চাইবে না যে ১৫, ১৬ বা ১০ বছরে বিয়ে হোক। তারা প্রতিবাদ করবে।”

সংসদে সংরক্ষিত নারী আসন না রাখার পক্ষেও মত জানান নির্বাচিত এই জনপ্রতিনিধি।

“সরাসরি নির্বাচন করে আসবো, সংরক্ষিত থাকতে চাই না। কেউ আড় চোখে দেখুক, বাঁকা চোখে দেখুক, কেউ বলুক শোপিস রাখা- এ জিনিসটায় নিজেদের অসম্মানিত করতে চাই না।”

পিকেএসএফ মিলনায়তনে এ আলোচনায় প্রতিষ্ঠানটির সভাপতি কাজী খলীকুজ্জমানের সভাপতিত্বে প্রতিষ্ঠানটির ১৩৬টি সহযোগী সংস্থার প্রতিনিধিরা অংশ নেন।

এতে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন ‘স্বাবলম্বী উন্নয়ন সমিতি’ এর নির্বাহী পরিচালক বেগম রোকেয়া।

]]>
1310859 http://d30fl32nd2baj9.cloudfront.net/media/2017/03/28/13_selina-hayat-ivy_tas_280317_0002.jpg/ALTERNATES/w300/13_Selina+Hayat+Ivy_TAS_280317_0002.jpg 1310858 http://d30fl32nd2baj9.cloudfront.net/media/2017/03/28/13_selina-hayat-ivy_tas_280317_0006.jpg/ALTERNATES/w300/13_Selina+Hayat+Ivy_TAS_280317_0006.jpg
16 2 Home bangladesh_bn বাংলাদেশ news-bn 199 1310863 জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম 2017-03-28 23:39:25.0 2017-03-29 09:38:33.0 হাতিরঝিলে ট্রাকচাপায় ব্যাংক কর্মকর্তার মৃত্যু হাতিরঝিলে ট্রাকচাপায় ব্যাংক কর্মকর্তার মৃত্যু রাজধানীর বিনোদন কেন্দ্র হাতিরঝিলে ট্রাকচাপায় মটরসাইকেল আরোহী এক ব্যাংক কর্মকর্তা মারা গেছেন। রাজধানীর বিনোদন কেন্দ্র হাতিরঝিলে ট্রাকচাপায় মোটরসাইকেল আরোহী এক ব্যাংক কর্মকর্তা মারা গেছেন। false http://bangla.bdnews24.com/bangladesh/article1310863.bdnews false http://d30fl32nd2baj9.cloudfront.net/bangla-media/2013/06/10/hatirjhil.jpg/ALTERNATES/w300/Hatirjhil.jpg
নিহত জিয়াউল কবীর সোহেল (৪৫) ওয়ান ব্যাংকের মতিঝিল শাখার একজন কর্মকর্তাবলে বাড্ডা থানার ওসি এম এ জলিল জানান। এ ঘটনায় এক নারী আহত হয়েছেন।

ওসি জলিল বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, মঙ্গলবার রাত সোয়া ১০টার দিকে হাতিরিঝিলের পুলিশ প্লাজার পেছনে ৩ নম্বর পানির পাম্পের কাছে একটি ট্রাক পেছন থেকে মোটরসাইকেল আরোহী সোহেলকে ধাক্কা দেয়। তিনি ছিটকে পড়ে ঘটনাস্থলেই মারা যান।

আহত নারীও ওই মোটরসাইকেলে ছিলেন জানিয়ে ওসি বলেন, তিনি সামান্য আহত হয়েছেন। সোহেলের সঙ্গে তার সম্পর্ক কী সে বিষয়ে স্পষ্ট তথ্য পাওয়া যায়নি।

ফায়ার সার্ভিস নিয়ন্ত্রণ কক্ষের কর্মকর্তা পলাশ চন্দ্র মোদক বলেন, খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা সেখানে গিয়ে ট্রাকের নিচ থেকে মোটরসাইকেলটি টেনে বের করেন। আহত নারীকে উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠানো হয়।

এ ঘটনায় ট্রাকটি আটক করা হলেও চালক পালিয়ে গেছনে।

]]>
635064 http://d30fl32nd2baj9.cloudfront.net/bangla-media/2013/06/10/hatirjhil.jpg/ALTERNATES/w300/Hatirjhil.jpg
17 2 Home bangladesh_bn বাংলাদেশ news-bn 199 1310778 জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম 2017-03-28 20:51:41.0 2017-03-28 20:54:15.0 টাওয়ার রেডিয়েশন পরীক্ষায় ‘ঝটিকা সফর হবে’ টাওয়ার রেডিয়েশন পরীক্ষায় ‘ঝটিকা সফর হবে’ মোবাইল টাওয়ার থেকে নিঃসৃত বিকিরণের (রেডিয়েশন) মাত্রা নিরূপনে ঝটিকা সফর চালাবে টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রক সংস্থা বিটিআরসি। মোবাইল টাওয়ার থেকে নিঃসৃত বিকিরণের (রেডিয়েশন) মাত্রা নিরূপনে ঝটিকা সফর চালাবে টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রক সংস্থা বিটিআরসি। false http://bangla.bdnews24.com/bangladesh/article1310778.bdnews false http://d30fl32nd2baj9.cloudfront.net/media/2017/03/28/33_btrc_280317_0003.jpg/ALTERNATES/w300/33_BTRC_280317_0003.jpg
লাইসেন্সের শর্ত অনুযায়ী বিকিরণের মাত্রা নিয়ন্ত্রিত হচ্ছে কি না তা খতিয়ে দেখা হবে বলে জানিয়েছেন বিটিআরসি চেয়ারম্যান শাহজাহান মাহমুদ।

মঙ্গলবার রাজধানীর ওয়েস্টিন হোটেলে এক অনুষ্ঠান শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, “অপারেটরদের লাইসেন্স দেওয়ার সময় শর্ত থাকে টাওয়ারে যেন আন্তর্জাতিক টেলিযোগাযোগ সংস্থা (আইটিইউ) নির্ধারিত পরিমাণের চেয়ে বেশি রেডিয়েশন না হয়।”

আদালতের নির্দেশে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের গঠিত বিশেষজ্ঞ কমিটি চার বছর আগে যে প্রতিবেদন দেয় তাতে মোবাইল টাওয়ার থেকে নিঃসৃত রেডিয়েশন (বিকিরণ) এর মাত্রা জনস্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর পর্যায়ের বলে উল্লেখ করা হয়।

সম্প্রতি হাই কোর্টে দাখিল করা ওই প্রতিবেদনে বলা হয়, সারা দেশে ছয়টি টাওয়ার পরীক্ষা করে একটিতে উচ্চমাত্রার বিকিরণ পেয়েছেন বিশেষজ্ঞরা।

প্রতিবেদনে নিয়মিতভাবে বিকিরণ পর্যবেক্ষণ, নিয়ন্ত্রণের পাশাপাশি নীতিমালা প্রণয়নের জন্য বিটিআরসিকে সুপারিশ করে বিশেষজ্ঞ কমিটি।

তবে বিটিআরসি চেয়ারম্যান বলছেন, টাওয়ার থেকে বেশি মাত্রার হচ্ছে বলে প্রমাণসহ কোনো অভিযোগ তাদের কাছে আসেনি।

এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, “অভিযোগ আসলে তদন্ত করা হবে। রেডিয়েশন নিয়ে অনেক স্টাডি রয়েছে, আপনারা শুনেছেন সেলফোন ব্যবহার করলে ক্যান্সার হয়, এগুলো শুধু অভিযোগ। তবে সঠিক প্রমাণ পাওয়া যায়নি।”

আগামীতে টাওয়ার থেকে নিঃসৃত বিকিরণের (রেডিয়েশন) মাত্রা নিরূপণে নজরদারি আরও বাড়ানো হবে বলে জানান তিনি।

এদিকে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের ওই প্রতিবেদন নিয়ে শুনানি থেকে মঙ্গলবার হাই কোর্ট মোবাইল ফোন কোম্পানির টাওয়ার থেকে নিঃসৃত বিকীরণের (রেডিয়েশন) মাত্রা ও স্বাস্থ্যঝুঁকির বিষয়ে তিনটি আন্তর্জাতিক সংস্থার মূল্যায়ন প্রতিবেদন নিতে সরকারকে নির্দেশ দিয়েছে।

এই তিন সংস্থা হলো- বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউ), আন্তর্জাতিক আনবিক শক্তি সংস্থা (আইএইএ) ও ইন্টারন্যাশনাল কমিশন অন নন-আইওনাইজিং রেডিয়েশন প্রটেকশন (আইসিএনআইআরপি)।

সংস্থার তিনটির কাছ থেকে বিশেষজ্ঞ মূল্যায়ন প্রতিবেদন নিতে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় কী কী পদক্ষেপ নিয়েছে সে বিষয়ে হলফনামা আকারে অগ্রগতির প্রতিবেদন আগামী ১০ এপ্রিলের মধ্যে জমা দিতে বলেছে আদালত।

পাশাপাশি ২০১৩ সালের ওই বিশেষজ্ঞ কমিটির প্রতিবেদনের সুপারিশে থাকা ‘বিকিরণ নিয়ন্ত্রণ সংক্রান্ত নীতিমালা’ বাস্তবায়নে কী পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে- তাও ওই দিনের মধ্যে আদালতকে জানাতে বলা হয়েছে।

]]>
1310775 http://d30fl32nd2baj9.cloudfront.net/media/2017/03/28/33_btrc_280317_0003.jpg/ALTERNATES/w300/33_BTRC_280317_0003.jpg 1310776 http://d30fl32nd2baj9.cloudfront.net/media/2017/03/28/33_btrc_280317_0001.jpg/ALTERNATES/w300/33_BTRC_280317_0001.jpg 1310777 http://d30fl32nd2baj9.cloudfront.net/media/2017/03/28/33_btrc_280317_0002.jpg/ALTERNATES/w300/33_BTRC_280317_0002.jpg 2 news-bn বাংলাদেশ 199 562964 2012-10-30 07:55:07.0 মোবাইল টাওয়ারের ঝুঁকি খতিয়ে দেখার নির্দেশ 2 news-bn বাংলাদেশ 199 1307651 2017-03-23 00:51:40.0 মোবাইল টাওয়ারের রেডিয়েশন ক্ষতিকর পর্যায়ের 2 news-bn বাংলাদেশ 199 1310539 2017-03-28 17:29:07.0 মোবাইল টাওয়ারে স্বাস্থ্যঝুঁকি: ৩ সংস্থার মূল্যায়ন চায় হাই কোর্ট
18 2 Home bangladesh_bn বাংলাদেশ news-bn 199 1310479 নিজস্ব প্রতিবেদক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম নিজস্ব প্রতিবেদক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম 2017-03-28 16:18:31.0 2017-03-28 19:10:36.0 বিমানবন্দরে দর্শনার্থী প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা আইপিইউ সম্মেলন: বিমানবন্দরে দর্শনার্থী প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা ঢাকায় ইন্টার পার্লামেন্টারি ইউনিয়নের (আইপিইউ) সম্মেলন ঘিরে শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের আগমন ও বহির্গমন হলে দর্শনার্থীদের প্রবেশ আগামী ১০ এপ্রিল পর্যন্ত নিষিদ্ধ করা হয়েছে। ঢাকায় ইন্টার পার্লামেন্টারি ইউনিয়নের (আইপিইউ) সম্মেলন ঘিরে শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের আগমন ও বহির্গমন হলে দর্শনার্থীদের প্রবেশ আগামী ১০ এপ্রিল পর্যন্ত নিষিদ্ধ করা হয়েছে। false http://bangla.bdnews24.com/bangladesh/article1310479.bdnews false http://d30fl32nd2baj9.cloudfront.net/media/2017/03/28/hazrat-shahjalal-international-airport-bangladesh-3.jpg/ALTERNATES/w300/Hazrat+Shahjalal+International+Airport+Bangladesh+3.jpg
বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষের জনসংযোগ কর্মকর্তা এ কে এম রেজাউল করিম জানান, ২৮ মার্চ মঙ্গলবার থেকেই এ নিষেধাজ্ঞা কার্যকর হচ্ছে।

“আইপিইউ সম্মেলন ঘিরে সার্বিক নিরাপত্তার স্বার্থে আজ থেকে ১০ এপ্রিল পর্যন্ত বিমানবন্দরের আন্তর্জাতিক আগমন ও বহির্গমন হলে কোনো দর্শনার্থী প্রবেশ করতে পারবেন না।”

বিশ্বের সবচেয়ে বড় সংসদীয় ফোরাম ইন্টার-পার্লামেন্টারি ইউনিয়নের (আইপিইউ) ১৩৬তম সম্মেলনের উদ্বোধন হবে আগামী ১ এপ্রিল জাতীয় সংসদের দক্ষিণ প্লাজায়। ৫ এপ্রিল পর্যন্ত সম্মেলনের বিভিন্ন অধিবেশন বসবে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে।  

দেশে জঙ্গিবিরোধী অভিযানের মধ্যে গত শুক্রবার বিমানবন্দরের সামনের সড়কে বোমা বিস্ফোরণে একজন নিহত হওয়ার ঘটনার পর বিমানবন্দর দিয়ে বিদেশগামী বা বিদেশফেরৎ যাত্রীদের একজনের বেশি দর্শনার্থী না আনতে অনুরোধ জানায় বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ।

এছাড়া বিমানবন্দরের প্রবেশ পথে চেকপোস্টে দায়িত্ব পালনকারী আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের সংখ্যা বাড়িয়ে দ্বিগুণ করা হয়। নিরাপত্তা জোরদারের অংশ হিসেবে ফুটপাতে বসানো হয় আর্চওয়ে।

কেউ বিমানবন্দরে প্রবেশ করতে চাইলে তাকে তল্লাশির পাশাপাশি টিকেট দেখা হচ্ছে বলে বিমানবন্দর আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়নের কর্মকর্তারা জানান। 

]]>
1310476 http://d30fl32nd2baj9.cloudfront.net/media/2017/03/28/hazrat-shahjalal-international-airport-bangladesh-3.jpg/ALTERNATES/w300/Hazrat+Shahjalal+International+Airport+Bangladesh+3.jpg 1238670 http://d30fl32nd2baj9.cloudfront.net/media/2016/11/06/06_airport-attack_apbn_061116_0008.jpg/ALTERNATES/w300/06_Airport+attack_ApBn_061116_0008.jpg 2 news-bn বাংলাদেশ 199 1310532 2017-03-28 17:17:35.0 আইপিইউ সম্মেলন: সংসদ ভবনে দর্শনার্থী প্রবেশে কড়াকড়ি
19 2 Home samagrabangladesh সমগ্র বাংলাদেশ news-district 9945 1310495 মাগুরা প্রতিনিধি, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম মাগুরা প্রতিনিধি, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম 2017-03-28 16:28:50.0 2017-03-28 16:28:50.0 মাগুরায় মাতৃগর্ভে শিশু গুলিবিদ্ধের মামলার বিচার শুরু মাগুরায় মাতৃগর্ভে শিশু গুলিবিদ্ধের মামলার বিচার শুরু মাগুরার আওয়ামী লীগ সমর্থকদের সংঘর্ষে মাতৃগর্ভে শিশু গুলিবিদ্ধ ও একজন নিহতের মামলায় ছাত্রলীগ নেতা সেন সুমনসহ ১৭ আসামির বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করে বিচার শুরুর আদেশ দিয়েছে আদালত। মাগুরার আওয়ামী লীগ সমর্থকদের সংঘর্ষে মাতৃগর্ভে শিশু গুলিবিদ্ধ ও একজন নিহতের মামলায় ছাত্রলীগ নেতা সেন সুমনসহ ১৭ আসামির বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করে বিচার শুরুর আদেশ দিয়েছে আদালত। false http://bangla.bdnews24.com/samagrabangladesh/article1310495.bdnews false http://d30fl32nd2baj9.cloudfront.net/media/2015/08/09/sumon-sen-magura.jpg/ALTERNATES/w300/Sumon-sen-Magura.jpg অভিযোগপত্রভুক্ত আসামি ছাত্রলীগ নেতা সেন সুমন (ফাইল ছবি)
মঙ্গলবার মাগুরার অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ সৈয়দ আরাফাত হোসেন তাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করে বিচার শুরুর নির্দেশ দেন।

রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী সৈয়দ ফিরোজুর রহমান জানান, মামলা থেকে অব্যাহতি চাওয়া পাঁচ আসামির আবেদন খারিজ করে অভিযোগভুক্ত ১৭ আসামির বিরুদ্ধে বিচার শুরু নির্দেশ দিয়েছেন বিচারক।

একইসঙ্গে আদালত আগামী ৮ মে মামলার সাক্ষ্যগ্রহণ শুরুর দিন রেখেছে বলেও জানান তিনি।

মামলার অভিযোগপত্রভুক্ত আসামিরা হলেন, সুমন সেন, আলী আকবর, মুজিবুর রহমান, সুমন আলী, ফরিদুর রহমান, সাগর, বাপ্পী গাজী, ইলিয়াস মোল্যা, সোহেল মিয়া, লিটন মল্লিক, মিল্টন মল্লিক, নজরুল ইসলাম, সোবহান শেখ, সোলায়মান হোসেন, তৈয়বুর রহমান তোতা, মো. সুমন ও আয়নাল শেখ।

এদের মধ্যে সেন সুমন জেলা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি ও তৈয়বুর রহমান তোতা জেলা সমবায় লীগের সাধারণ সম্পাদক।

২০১৫ সালের ২৩ জুলাই মাগুরা শহরের দোয়ারপাড়ে চাঁদাবাজি, মাদক ব্যবসা ও আধিপত্য বিস্তার নিয়ে ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগ সমর্থক দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষে মমিন ভূইয়া নামে একজন নিহত হয়। এছাড়া সংঘর্ষে গুলিবিদ্ধ হন এক পক্ষের নেতা কামরুল ভূইয়ার ভাবি অন্তঃসত্ত্বা নাজমা বেগম। পরদিন গুলির ক্ষত নিয়েই জন্ম হয় তার শিশু।

এ ঘটনায় ২৫ জুলাই মোমিন ভুইয়ার ছেলে রুবেল ছাত্রলীগ নেতা সুমন সেনকে প্রধান আসামি করে সদর থানায় ১৬ জনের নামে মামলা করেন। মামলার আসামিদের মধ্যে আজিবর নামে একজন এরই মধ্যে পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত হয়েছেন।

তদন্ত শেষে এজাহারভুক্ত এক আসামির নাম বাদ ও নতুন তিন জনের নাম যোগ করে পরবর্তীতে ১৭ জনের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র দেয় পুলিশ।

এদিকে সব আসামির বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন হওয়ায় সন্তোষ প্রকাশ করেছেন মামলার বাদী রুবেল ভুইয়া। তিনি দ্রুত বিচার কাজ সম্পন্ন করে দোষীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানান।

]]>
1008543 http://d30fl32nd2baj9.cloudfront.net/media/2015/08/09/sumon-sen-magura.jpg/ALTERNATES/w300/Sumon-sen-Magura.jpg অভিযোগপত্রভুক্ত আসামি ছাত্রলীগ নেতা সেন সুমন (ফাইল ছবি) 2 news-district সমগ্র বাংলাদেশ 9945 1065217 2015-12-01 18:06:31.0 মাতৃগর্ভে শিশু গুলিবিদ্ধ: ১৭ জনকে আসামি করে অভিযোগপত্র 2 news-district সমগ্র বাংলাদেশ 9945 1295276 2017-02-27 16:56:44.0 মাগুরায় মাতৃগর্ভে শিশু গুলিবিদ্ধ মামলার অভিযোগ গঠন পেছাল 2 news-bn বাংলাদেশ 199 1005264 2015-08-01 19:21:11.0 ‘দলের ছত্রছায়ায়’ সংঘাত, তাতে গুলিবিদ্ধ হয় গর্ভের শিশু 2 news-bn বাংলাদেশ 199 1005788 2015-08-02 21:55:57.0 মাতৃগর্ভে শিশু গুলিবিদ্ধ: আসামি ছাত্রলীগ নেতা সুমন গ্রেপ্তার 2 news-bn বাংলাদেশ 199 1012697 2015-08-18 02:00:39.0 গর্ভস্থ শিশু গুলিবিদ্ধের আসামি আজিবর ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত 2 news-district সমগ্র বাংলাদেশ 9945 1247345 2016-11-23 20:12:44.0 মাতৃগর্ভে শিশু গুলিবিদ্ধ: মামলা থেকে অব্যাহতির আবেদন ৩ আসামির
20 2 Home bangladesh_bn বাংলাদেশ news-bn 199 1310731 নিজস্ব প্রতিবেদক বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম নিজস্ব প্রতিবেদক বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম 2017-03-28 19:56:19.0 2017-03-28 19:56:19.0 যুদ্ধাপরাধ ট্রাইব্যুনালে প্রথম আত্মসমর্পণ যুদ্ধাপরাধ ট্রাইব্যুনালে প্রথম আত্মসমর্পণ একাত্তরের যুদ্ধাপরাধ মামলার এক আসামি আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালে আত্মসমর্পণ করেছেন। একাত্তরের যুদ্ধাপরাধ মামলার এক আসামি আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালে আত্মসমর্পণ করেছেন। false http://bangla.bdnews24.com/bangladesh/article1310731.bdnews false http://d30fl32nd2baj9.cloudfront.net/media/2017/03/28/abdus-sattar-tribunal.jpg/ALTERNATES/w300/Abdus-Sattar-Tribunal.jpg
২০১০ সালে যুদ্ধাপরাধের বহু প্রত্যাশিত বিচার শুরুর পর কোনো আসামির আত্মসমর্পণের ঘটনা এটাই প্রথম।

মো. আব্দুস সাত্তার নামের ময়মনসিংহের ওই ব্যক্তি মঙ্গলবার আত্মসমর্পণ করে আইনজীবীর মাধ্যমে জামিনের আবেদন করলে বিচারপতি মো. আনোয়ারুল হকের নেতৃত্বাধীন তিন সদস্যের ট্রাইব্যুনাল তাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেয়।

হত্যা, গণহত্যা ও আটকে রেখে নির্যাতনের মত মানবতাবিরোধী অপরাধের ছয়টি অভিযোগ রয়েছে ৬১ বছর বয়সী সাত্তারসহ এ মামলার আট আসামির বিরুদ্ধে। ময়মনসিংহ-৭ (ত্রিশাল) আসনের সাংসদ এমএ হান্নানও রয়েছেন তাদের মধ্যে।

আব্দুস সাত্তারের জামিনের জন্য আদালতে শুনানি করেন তার আইনজীবী মোজাম্মেল হক ভূঁইয়া। অন্যদিকে প্রসিকিউটর সুলতান মাহমুদ সীমন ও রেজিয়া সুলতানা চমন এর বিরোধিতা করেন।  

রেজিয়া সুলতানা পরে বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে জানান, আসামিদের মধ্যে জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য হান্নান, তার ছেলে মো. রফিক সাজ্জাদ, ডা. খন্দকার গোলাম ছাব্বির আহমাদ, মিজানুর রহমান মিন্টু ও মো. হরমুজ আলী আগে থেকেই কারাগারে রয়েছেন।

সাত্তারের আত্মসমর্পণের পর এখন পলাতক আছেন মো. ফখরুজ্জামান ও খন্দকার গোলাম রব্বানী।

২০১৫ সালের ১৯ মে ত্রিশালের শহীদ মুক্তিযোদ্ধা আবদুর রহমানের স্ত্রী রহিমা খাতুন এ মামলা করেন। ময়মনসিংহের ১ নম্বর আমলি আদালতের বিচারক পরে এজাহারটি গ্রহণ করে ঢাকার আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালে পাঠানোর আদেশ দেন।

ট্রাইব্যুনালে তদন্ত সংস্থা ওই বছরের ২৮ জুলাই তদন্ত শুরু করে। পরে ১০ অক্টোবর ট্রাইব্যুনাল আসামিদের বিরুদ্ধে পরোয়ানা জারি করে।

ওইদিনই হান্নানকে গুলশানে তার বাড়ি থেকে এবং ছেলে রফিক সাজ্জাদকে ওই এলাকার আরেকটি বাড়ি থেকে গ্রেপ্তার করা হয়। এছাড়া গোলাম সাব্বির, মিন্টু ও হরমুজ আলীকেও গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

অভিযোগের তদন্ত শেষে গত বছরের ১১ জুলাই ট্রাইব্যুনালের প্রসিকিউশনের কাছে প্রতিবেদন জমা দেয় তদন্ত সংস্থা। প্রসিকিউশন আনুষ্ঠানিক অভিযোগ দাখিলের পর গত বছরের ১১ ডিসেম্বর ট্রাইব্যুনাল তা আমলে নেয়।

ছয় অভিযোগ

অভিযোগ ১: একাত্তর সালের ২৩ ও ২৪ এপ্রিল ময়মনসিংহের গোলকীবাড়ী বাইলেনের প্রখ্যাত ভাস্কর আব্দুর রশিদকে অপহরণ, নির্যাতনের পর জিপের পেছনে রশি দিয়ে বেঁধে টেনে হিঁচড়ে হত্যা ও লাশ গুম।

অভিযোগ ২: মুক্তিযুদ্ধের সময় ২ অগাস্ট ত্রিশাল থানার বৈলর হিন্দুপল্লী ও মুন্সিপাড়ায় অগ্নিসংযোগ, সেন্টুকে গুলি করে হত্যা ও দুজন হিন্দুকে গুলি করে আহত করা।

অভিযোগ ৩: একাত্তরের ৭ থেকে ৯ অগাস্টের মধ্যে বৈলরের আ. রহমান মেম্বারকে আটক, অপহরণ, নির্যাতন, হত্যা ও লাশ গুম।

অভিযোগ ৪: মুক্তিযুদ্ধের সময় ১৭ নভেম্বর থেকে ৭ ডিসেম্বরের মধ্যে খন্দকার আব্দুল আলী রতনকে অপহরণ, আটক, নির্যাতন, হত্যা ও লাশ গুম।

অভিযোগ ৫: একাত্তরের ২৩ এপ্রিল থেকে ২৮ জুলাইয়ের মধ্যে মো. আবেদ হোসেন খানকে আটক, নির্যাতন ও পাকিস্তানি সেনাবাহিনীর কাছে হস্তান্তর।

অভিযোগ ৬: একাত্তরের ৭ থেকে ১০ অগাস্টের মধ্যে কে এম খালিদ বাবুকে অপহরণ, আটক ও নির্যাতন।

]]>
1310730 http://d30fl32nd2baj9.cloudfront.net/media/2017/03/28/abdus-sattar-tribunal.jpg/ALTERNATES/w300/Abdus-Sattar-Tribunal.jpg